দত্তাবাদে এক সপ্তাহে ডেঙ্গুতে দুই ছাত্রের মৃত্যু এলাকায় আতঙ্কে

ছবি: প্রতীকী

কলকাতা: ফের সল্টলেকে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে তৃতীয় শ্রেণীর এক ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল৷ মৃত ছাত্রের নাম আকাশ চৌধুরী৷ বিধাননগর পুরসভার ৩৯ নম্বর ওয়ার্ডের ১১৫ দত্তাবাদ রোডের বাসিন্দা৷ আকাশ বাগমারী-মানিকতলা গভমেন্ট স্পন্সসর হাই স্কুলের ছাত্র৷

পরিবার সূত্রের খবর, বেশ কয়েকদিন ধরে আকাশ জ্বরে ভুগছিল৷ তাকে চলতি মাসের তিন তারিখে বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ অবস্থার অবনতি হলে তাকে চার তারিখে এন আর এস হাসপাতালে রেফার করা হয়৷ সেখানেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় আকাশের৷ হাসপাতাল সূত্রে খবর,নয় বছরের আকাশের রক্তে NS-1 পজিটিভ পাওয়া যায়৷ চিকিৎসকরা অনেক চেষ্টা করেও ওই ছাত্রকে বাঁচাতে পারেনি৷

এক সপ্তাহ আগে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে নারায়ণ শ্রেষ্ঠ নামে সল্টলেক পয়েন্ট স্কুলের চতুর্থ শ্রেণীর এক ছাত্রের মৃত্যু হয়৷ নারায়ণ শ্রেষ্ঠও বিধাননগর পুরসভার ৩৯ নম্বর ওয়ার্ডের দত্তাবাদের বাসিন্দা ছিল৷ হাসপাতাল সূত্রে খবর, বছর দশের নারায়ণ শ্রেষ্ঠের প্লেটলেট চার হাজারের নিচে নেমে পড়েছিল যার ফলে শরীরের অঙ্গ প্রত্যঙ্গ কাজ করা বন্ধ করে দেয়৷ মাল্টি অরগ্যান ফেলিওর কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

- Advertisement -

বিধাননগর পুরসভার ডেঙ্গু রোধে একগুচ্ছ পরিকল্পনা নিয়ে কাজ শুরু করেছে কিন্তু ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু ঠেকাতে পারছে না বলে অভিযোগ৷ তার মধ্যে আবার একই পাড়ায় এক সপ্তাহের মধ্যে দুই ছাত্রের মৃত্যু৷ এরফলে এখন দত্তাবাদের বাসিন্দারা আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন৷

এবছর রাজ্যে ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল চার৷ এই সংখ্যাটি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায় সেটাই এখন দেখার বিষয়৷ গত বছরের রেকর্ড ভাঙ্গবে না তো উঠছে এমনই প্রশ্ন৷

Advertisement ---
---
-----