রাখঢাক না রেখে অবশেষে বিয়ে নিয়ে মুখ খুললেন দীপিকা

মুম্বই: ‘আই লাভ রনবীর’ একসময় বিন্দাস মনের কথা বলতেন দীপিকা। শরীরে লিখেছিলেন ‘আর কে’ ট্যাটু। কিন্তু সেসব ছেলেমানুষী আটকে রয়েছে অতীতে। এখন সাবধানী দীপিকার মনের খবর শুধু জানে তাঁর মন মাঝি। চারিদিকে যখন হইচই পড়ে গিয়ে তাঁর বিয়ের খবরে, তখনও মুখে কুলুপ এটে রইলেন তিনি। শুধু জানালেন, ‘খুব শীঘ্রই তোমাদের সঙ্গে শেয়ার করব’। ব্যাস ফুলস্টপ।

প্রতিবারের মতো এবারও এড়িয়ে গেলেন। কিন্তু অস্বীকার করলেন না। আসলে মুখে না বললেও, বরাবর রণবীর সিংয়ের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের আভাস তিনি দিয়ে গিয়েছেন। ইঙ্গিতের সেই সিঁড়ি বেয়ে আজ ছাদনাতলার পথে বলিউডের দুই লাভবার্ডস। শোনা যাচ্ছে আগামী ২০ নভেম্বর গাঁটছড়া বাঁধবেন তাঁরা। জানা গিয়েছে, অভিনেতা-অভিনেত্রীর অলওয়েজ ফেভারিট হলি-ডে ডেস্টিনেশন ইতালি। তাই এই জায়গাকে বিয়ের ভেনু হিসাবে বেছে নিয়েছেন এই লাভ বার্ডস। আসলে নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে কথা বলতে চান না রণ ও দীপি। তাই ডেস্টিনেশন ওয়েডিং বেছে নিয়েছেন তাঁরা। এমনকি বিয়েতে নিমন্ত্রিত থাকবেন দুই পরিবারের আত্মীয় ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা। জানা গিয়েছে সেই লিস্ট ৩০ জনের বেশি নয়।

ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে

কিছুদিন আগে বাজিরাও মস্তনির বিয়ের গুঞ্জনে শিলমোহর দিলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা কবীর বেদী। ট্যুইট করে রাম-লীলার বিয়ের খবর দেন তিনি। স্পষ্ট লিখেছেন, ইটালিতেই ডেস্টিনেশন ওয়েডিং সারবেন বলিউডের বাজিরাও-মস্তানি। একই সঙ্গে ভবিষ্যতে জীবনের জন্য দুই তারকাকে প্রকাশ্যেই শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন মিস্টার বেদী।

- Advertisement DFP -

আরও পড়ুন: স্বস্তির নিঃশ্বাস, প্রিয়ার পাশে শীর্ষ আদালত

বলিপাড়ার খবর, বিয়ের আগে দশ দিন ধরে মেয়ে জামাইয়ের মঙ্গলের জন্য পুজো রাখতে চান দীপিকার মা। মায়ের সেই ইচ্ছেকে সম্মান জানাতেই রন-দীপির বিয়ের সেলিব্রেশন শুরু হচ্ছে দশদিন আগে থেকেই।

ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে

জানা গিয়েছে, নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহতেই পরিবারের সঙ্গে বেঙ্গালুরুতে পৌঁছে যাবেন রনবীর সিং। সেখানেই করা হবে পুজোর আয়োজন। তাছাড়া দীপিকার মা বেঙ্গালুরুর নন্দী মন্দিরের পুরোহিতদের সঙ্গে কথা বলে নিয়েছেন। পাত্র-পাত্রীকে নিয়ে সেখানেও নাকি পুজোর আয়োজন করা হবে। আর তারপরই ম্যারেজ ডেস্টিনেশন ইতালিতে উড়ে যাবেন তারা।

আরও পড়ুন: ভিড়ের মধ্যে কি হল দেখুন এই অভিনেত্রীর সঙ্গে

জানা গিয়েছে, সোনম আর আনন্দের বিয়ে দেখে নাকি সতর্ক হয়েছেন লাভ বার্ডস। যেভাবে সোনমের বিয়ের আচার-অনুষ্ঠান ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায় তা নাকি একদমই পছন্দ হয়নি নায়িকা। তাই নিজেদের ব্যক্তিগত মুহূর্ত গুলো প্রাইভেট রাখতে চান রণ-দীপি। সেকারণে বিয়ের অনুষ্ঠানে অতিথিদের মোবাইল না ব্যবহার করার অনুরোধ করবেন না। বিয়ের পাঠ চুকিয়ে গেলে আবার ফোন ইউজ করতে পারবে তাঁরা।

Advertisement
----
-----