ছবি- প্রতীকী

নয়াদিল্লি : বাইরে নয় , বাড়িতেই বেশি ধর্ষিতা হচ্ছেন মহিলারা। এমনই তথ্য উঠে এসেছে দিল্লি পুলিশের কাছে। তাঁদের পরিসংখ্যান অনুযায়ী রাস্তায় ধর্ষণের ঘটনার চেয়ে বাড়িতেই ক্রমে বাড়ছে নির্যাতনের সংখ্যা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অভিযুক্ত আত্মীয়রাই।

বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্র ভারতে প্রতিমুহূর্তেই ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। ২০১৭ সালের দিল্লি পুলিশের পরিসংখ্যান অনুযায়ী ৭২ শতাংশ ক্ষেত্রে পড়শি-বন্ধু-আত্মীয়দের দ্বারাই মেয়েরা নিগৃহীত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দিল্লি পুলিশ সাংবাদিক বৈঠকে জানান, ২০১৭-র ডিসেম্বর পর্যন্ত ২০৪৯ টি ধর্ষণের অভিযোগ আসে। এর মধ্যে জনৈক দ্বারা ৩.৩৭ শতাংশ এবং আত্মীয়, পড়শি বা বন্ধুদের দ্বারা ৭২.২৭ শতাংশ।

আরও পড়ুন: আশ্রমেই গণধর্ষিতা ৩ সাধ্বী

দিল্লি পুলিশ কর্তা দিপেন্দ্র পাঠক এ দিন সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে নিগৃহীতারা তাঁদের পরিবারের বাবা অথবা ভাইয়ের দ্বারা লালসার শিকার হয়েছেন। আবার বেশ কিছু অভিযোগ নিগৃহীতদের হবু স্বামীর বিরুদ্ধে। এই মহূর্তে ১৯ শতাংশ বেড়েছে শ্লীলতাহানির ঘটনা। এর মধ্যে ৮৩.২৬ শতাংশ কেসের মধ্যে ধরা পড়েছে ৩,৬০৪ জন।

দিল্লির রাস্তায় নির্ভয়া কাণ্ড সারা দেশকে কাঁপিয়েছিল। সেদিন রাস্তায় নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছিল তাঁকে। কিন্তু নয়া তথ্য আরও ভয়ঙ্কর দিনের কথা বলছে তা পরিস্কার।

©Kolkata24x7 এই নিউজ পোর্টাল থেকে প্রতিবেদন নকল করা দন্ডনীয় অপরাধ৷ প্রতিবেদন ‘নকল’ করা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে ----
----