স্যালুট অফিসার! মৃত ড্রাইভারের পরিবারের হাতে তুলে দিলেন অর্ধেক বেতন

নয়াদিল্লি: একটি ভুল ইউটার্ন, আর বদলে যায় জীবনের গল্প৷ মান সিং, পেশায় ট্রাক ড্রাইভার৷ কঠোর পরিশ্রমে পরিজনের বিয়ের জন্য জমিয়ে ছিলেন বেশ কিছু টাকা৷ কিন্তু, মূহুর্তে অর্থহীন হয়ে যায় সবকিছু৷ এক রাতে কাজ সেরে বাড়ি ফেরার সময় ডাকাতের হাতে পড়েন মান সিং৷ ইচ্ছাপূরণে অসম্মতি জানালে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁকে (মান সিং) আঘাত করে দুষ্কৃতীদের দলটি৷ দীর্ঘ সময় ধরে আহত অবস্থায় রাস্তায় পড়ে থাকার পর প্রাণ হারান তিনি৷

স্ত্রী দর্শন কৌর এবং তিন সন্তানকে নিয়ে ছিল সিংয়ের পরিবার৷ সংবাদ মাধ্যমকে বালজিত কৌর (ছেলে) জানান, ‘আমরা চিন্তিত ছিলাম কীভাবে পড়াশুনা করব এবং স্কুলের ফি জমা করব৷ খাবারের টাকা যোগাড় করাও হয়ে উঠেছিল কষ্টকর৷ তারপর, একদিন দিল্লি থেকে একটি ফোন আসে৷ ডিসিপি ম্যামের (আইপিএস অফিসার আসলাম খান) সামনে আসে আমাদের দুর্দশার কথা৷ তিনি আমাদের সঙ্গে কথা প্রতি মাসে কিছু টাকা পাঠানোর প্রতিশ্রুতি দেন৷ সঙ্গে তিনি বলেন, তিনি চেষ্টা করবেন সরকারি সাহায্যের জন্য৷’

আর সেদিন থেকেই আইপিএস অফিসার আসলাম খান তাঁর বেতনের অর্ধেক টাকা তুলে দেন নিহতের পরিবারের হাতে৷ বালজিত বলেন, আমাদের এখনও পর্যন্ত তাঁর সঙ্গে দেখা হয়নি৷ প্রায় প্রতিদিন তিনি ফোন করে আমাদের খবরাখবর নেন৷ আমার পড়াশুনার বিষয়ে জানতে চান৷ জম্মুর একটি ভাল স্কুলে ভাইয়ের ভরতি নিয়েও কথা হয়েছে তাঁর সঙ্গে৷ সংবাদ মাধ্যমকে বালজিত বলে সেও ভবিষ্যতে একজন আইপিএস অফিসার হতে চায়৷ দিল্লি পুলিশে যুক্ত হওয়ার স্বপ্নও বার বার উঠে এসেছে তার কথায়৷

Advertisement
----
-----