‘মা দুর্গার বিসর্জন আটকাবে এমন কেউ এখনও জন্মায়নি পশ্চিমবঙ্গে’

কলকাতা: মা দুর্গার বিসর্জন বন্ধ করে দেবে, এমন কারও জন্ম এখনও হয়নি পশ্চিমবঙ্গে। দিল্লি থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে এমনটাই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দিল্লির এক বিজেপি নেতা। মুখ্যমন্ত্রী কি করতে পারেন, সেটাই দেখে নেবেন বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

দুর্গাপুজোর একাদশীর দিন মহরম। সেই কারণে সে দিন দুর্গা প্রতিমার বিসর্জনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে রাজ্য সরকার। গত বুধবার এই ঘোষণা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপরই মমতার ওই ঘোষণার খবরটি ট্যুইট করে বার্তা দেন তেজিন্দর বগ্গা নামে ওই বিজেপি নেতা। তিনি দিল্লি বিজেপির মুখপাত্র বলেই জানা গিয়েছে। এরপর আরও একটি ট্যুইট করেছেন তেজিন্দর। তিনি লিখেছেন, ‘এই দশমীতে আমি থাকব পশ্চিমবঙ্গে, আর দেখব কে বিসর্জন আটকায়?’

আরও পড়ুন: মহরমের আগে দশমীতে রাজ্যে ‘অস্ত্র পুজো’ সংঘ পরিবারের

- Advertisement -

ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণাকে হিন্দুত্বের উপরে আক্রমণ বলে মন্তব্য করেছে রাজ্য বিজেপি। এ নিয়ে মামলা আদালতে গড়াতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে। এরই মধ্যে দিল্লি বিজেপির মুখপাত্র তেজিন্দর বগ্গা টুইট করে হুমকি দিয়েছেন।

বুধবার কলকাতা নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে দুর্গাপুজো মহরম এবং ইদ উপলক্ষে সকল উদ্যোক্তাদের নিয়ে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সেখানে এদিন মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দেন একাদশীর দিন মহরম পড়ায় ওইদিন কোনও দুর্গা পুজোর বিসর্জন দেওয়া যাবে না৷ তাছাড়া দশমীর দিন বিসর্জন সন্ধ্যা ৬টার মধ্য সেরে নিতে হবে৷ তবে দুর্গাপুজোর বিসর্জন চলবে লক্ষ্মী পুজোর আগের দিন পর্যন্ত৷

আরও পড়ুন: মহরমের জন্যে দুর্গাপুজার বিসর্জনের সময় বেঁধে দিলেন মমতা

প্রসঙ্গত, গত বছরও এভাবে দশমীর দিনে বিসর্জনের সময় বেধে দিতে গিয়ে রাজ্য সরকারের মুখ পুড়েছিল৷ কারণ গত বছর দশমীতে বিকেল ৪টে পর্যন্ত বাড়ির পুজোর প্রতিমা ভাসান দেওয়া নির্দেশ দিয়েছিল রাজ্য সরকার৷ তখন তিনটি বাড়ির পুজো হাইকোর্টে বিসর্জনের সময় বাড়ানোর জন্য আবেদন করে এবং তখন আদালত নির্দেশ দেয় বাড়ির প্রতিমা দশমীর দিন রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত বিসর্জন দেওয়া যাবে। কিন্তু সেই নির্দেশের বিরুদ্ধে ফের রাজ্য সরকার আবেদন করে ডিভিশন বেঞ্চে এবং তখন ডিভিশন বেঞ্চও রাজ্যের আবেদন খারিজ করে আগের রায়ই বহাল রাখে৷

Advertisement ---
-----