নোটবন্দি একটি পরিকল্পিত অপরাধমূলক আর্থিক কেলেঙ্কারি: রাহুল গান্ধি

নয়াদিল্লি: নোটবন্দির দ্বিতীয় বছরে কড়া ভাষায় এর সমালোচনা করলেন কংগ্রেস সভাপতি। বৃহস্পতিবার নরেন্দ্র মোদী ঘোষিত নোটবাতিলের সিদ্ধান্তের দ্বিতীয় বৎসর পূর্তি দিবস। কালো টাকা ও জাল নোট বাতিলের জন্য ২ বছর আগে প্রধানমন্ত্রী হঠাৎ করেই এই সিদ্ধান্ত নেন।

এই সিদ্ধান্ত নেবার পরের দিনগুলিতে এটিএম সেন্টারগুলিতে মাইলের পর মাইল লম্বা লাইন পড়ে যায়। অনেক বয়স্ক ও অসুস্থ মানুষ লাইন দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করাকালীন অজ্ঞান হয়ে যান, অনেকে মারাও যান। বিরোধী দলের দাবী মতো মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে যায়। তারা অভিযোগ করেন যে সরকার মৃতদের প্রতি কোনরূপ সমবেদনা প্রকাশ করেনি।

২বছর আগের নোটবন্দি নিয়ে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী বলেন, “২ বছর আগে সরকারের সিদ্ধান্তে হওয়া ডিমানিটাইজেশন শুধু একটি অত্যন্ত দুর্বল অর্থনৈতিক নীতিই নয়! বরং সুচতুরভাবে পরিকল্পিত একটি অপরাধমূলক আর্থিক কেলেঙ্কারি। “

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, যিনি নিজে একজন বিখ্যাত অর্থনীতিবিদ ও অর্থনীতির উদারীকরণের স্থপতিকার। তিনিও এদিন বলেন যে ডিমানিটাইজেশনের ক্ষতচিহ্নগুলো সময়ের সাথে সাথে স্পষ্ট হয়ে উঠছে।

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর সুরেই রাহুল আরও বলেন, “এটি খুব বড় এক ভুল। আমাদের অদক্ষ অর্থমন্ত্রীও অদ্ভুতভাবে এই সমর্থনের অযোগ্য অপরাধমূলক নীতিটির সমর্থন করেছেন।”

কংগ্রেস সভাপতি বলেন, “১২০ জনেরও বেশী ভারতীয় ওই লাইনে মারা যায়। আমরা অবশ্যই ওদের ভুলবো না। অনেক ছোট ও মাঝারি ব্যবসা নষ্ট হয়ে যায়। প্রথাবহির্ভূত বিভাগগুলিও ধ্বংস হয়ে যায়।” এই মৃত্যুগুলোর কোন অফিসিয়াল রেকর্ড নেই।

----
-----