লখনউ: হাসপাতাল থেকে এক প্রসূতিকে ফিরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল৷ মাঝ রাস্তায় প্রসব যন্ত্রণা ওঠায় শেষমেশ একটি রেল স্টেশনে সন্তান প্রসব করলেন তিনি৷ কিন্তু বেশিক্ষণ বাঁচানো যায়নি সদ্যজাতকে৷ জন্মের কয়েক ঘণ্টা পরই মারা যায় সে৷ পরিবারের অভিযোগ, হাসপাতালে জন্মালে শিশুটিকে এভাবে অকালে মরতে হত না৷ এই ঘটনা উত্তরপ্রদেশের চিকিৎসা পরিষেবার খামতিগুলিকে আরও একবার সামনে এনে দিল৷

ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের ইটা জেলার৷ জানা গিয়েছে, এক গর্ভবতী মহিলাকে সরকারি হাসপাতাল থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়৷ কিন্তু প্রসবযন্ত্রণা ওঠায় ইটা রেল স্টেশনের শৌচালয়ে সন্তানের জন্ম দেন তিনি৷ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের নজরে আসতেই তারাই অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করেন৷

কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে৷ কারণ জন্মের কয়েক ঘণ্টা পরই মারা যায় শিশুটি৷ রেলের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, স্টেশনে সন্তান জন্মানোর খবর পাওয়ার পরই ওই মহিলার জন্য অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করা হয়৷ কিন্তু তাঁর সদ্যজাত শিশুটিকে বাঁচানো যায়নি৷ ওদিকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কেন প্রসূতিকে ভরতি নেয়নি তার কারণ জানা যায়নি৷

----
--