ডু’ প্লেসির ম্যাচ জেতানো ইনিংসের প্রশংসায় ধোনি

মুম্বই: ওয়াংখেড়ের ‘ইজি উইন’ ম্যাচকে শেষ ওভারের টানটান উত্তেজনায় নিয়ে গিয়েছিলেন সানরাইজার্স বোলাররা৷ মঙ্গলবার ১৪০ রান তাড়া করতে নেমে হিমশিম খেতে হয়েছে ধোনিব্রিগেডকে৷ কিন্তু শেষ অবধি ফ্যাফ ডু’ প্লেসির ৪২ বলে অপরাজিত ৬৭ রানের ইনিংস সুপার কিংসকে ফাইনালে তোলে৷ ম্যাচের পর ডু’প্লেসির প্রশংসা করেন চেন্নাই অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি৷

প্রোটিয়া তারকা ব্যাটসম্যানের অভিজ্ঞতাই তাঁকে এরকম টাফ ফাইটেও রান এনে দিয়েছে বলে জানান ধোনি৷ ম্যাচের পর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে চেন্নাই অধিনায়ক বলেন, ‘ফ্যাফের ইংনিসটা হচ্ছে সেইরকম একটা ইনিংস যেখানে অভিজ্ঞতা কাজে লাগে৷ এটা কখনোই সহজ ছিল না৷ বিশেষ করে যখন আপনি অনেকগুলো ম্যাচ খেলেননি৷ আমি সবসময় বলতাম ব্যাটের সঙ্গে সঙ্গেই নিজের মনকে ট্রেইনড করতে হবে৷ আপনাকে বুঝতে হবে আপনার কাজটা কি সেটা বুঝে খেলে যেতে হবে৷ ফ্যাফ সত্যিই অসাধারণ খেলেছে৷’

মঙ্গলবার সুপার কিংসের অবিশ্বাস্য জয় নিয়ে ধোনি বলেন, ‘ম্যাচ জিতলে আমি সবসময় খুশি হই৷ পয়েন্ট টেবলের দু’নম্বরে থাকার দরুন আমাদের কাছে আরও একটা সুযোগ ছিল৷ ওরা (সানরাইজার্স) অসাধারণ বল করেছে৷ ভুবি ভালো করেছে ওকে যোগ্য সঙ্গত দিয়েছে রশিদ খান৷ মিডল অর্ডারে চারটে উইকেট হারানো চাপে ফেলবেই৷ ওদের বোলিং স্কোয়াডে রশিদ সত্যিই অসাধারণ বোলার৷ এরকম ম্যাচ জেতা আনন্দের কিন্তু সঙ্গে আমাদের নিজেদের ভুলগুলো শুধরে নিতে হবে৷’

- Advertisement -

এদিন শুরুতেই মাত্র ২৪ রানে ওয়াটসন, রায়না , রায়ডুকে হারায় চেন্নাই৷ তবে প্রথম ওভার বল করতে এসে চেন্নাইকে সবচেয়ে বড় ধাক্কাটা দেন সানরাইজার্সের সেরা স্পিন অস্ত্র রশিদ খান৷ আফগান স্পিনারের ভেল্কিতে ৯ রানে বোল্ড হন মহেন্দ্র সিং ধোনি৷ অধিনায়ক ডাগ-আউটে ফেরার পর ধারাবাহিক ভাবে উইকেট হারায় কিংসব্রিগেড৷ একমাত্র লড়াই করেন ওপেনার ফ্যাফ ডু’প্লেসি৷ শেষ পর্যন্ত ৪২ বলে ৬৭ রানের ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলেন ডু’প্লেসি৷ পাঁচটি চার ও চারটি ছক্কা হাঁকিয়ে দলকে অপ্রত্যাশিত জয় এনে দেন সুপার কিংসের এই প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান৷

Advertisement ---
---
-----