‘মনীশ-গম্ভীরের অভাব ঢেকে দেবে দীনেশ-রানারা’

কলকাতা: আইপিএল শুরু হতে বাকি আর কয়েকদিন৷ আর আগে পুরোদমে প্রস্তুতিতে নেমে হুংকার দিচ্ছেন নাইটরা৷ পুরনোদের মধ্য ক্রিস লিন, রাসেলদের যেমন বিংধ্বসী মেজাজে পাওয়া যাচ্ছে, তেমনি নতুনদের মধ্যে শুভমন-নাগারকোটি-জনসনরাও চমক দিতে তৈরি৷ গম্ভীর- মণীশ পাণ্ডের মতো ‘কেকেআর ডিপেন্ডেবলস’রা না থাকায় নাইটদের ব্যাটিং নিয়ে শুরু থেকে একঝাঁক প্রশ্ন ঘোড়াফেরা করছে৷ নাইটদের ব্যাটিং কোচ সাইমন কাটিচ অবশ্য বলছেন, ‘ ভ্রু কুঁচকানোর কিছু নেই৷ গম্ভীর-মণীশরা না থাকলেও নতুন মরশুমে দীনেশ-রানা-শুভমনের মতো একঝাঁক নতুন ক্রিকেটার নাইট সংসারে জুড়েছে৷ তারাই এখন নাইটদের গেম চেঞ্জার৷ গম্ভীর-মণীশের অভাব ঢেকে দেবে এরাই৷’

শেষবার ক্রিস লিন কাঁধে চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ায় ওপেনিংয়ে নতুন কম্বিনেশন এনেছিল নাইট শিবির৷ গম্ভীরের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছিল সুনীল নারিনকে৷ এবারও কি প্রথম ম্যাচ থেকেই মিস্ট্রি স্পিনারকে পুরোনো ভূমিকায় দেখা যাবে? সেই প্রশ্নে অবশ্য এখনই কোনও উত্তর দিতে চান না কাটিচ৷ বৃহস্পতিবার প্রস্তুতিতে অজি কোচ শুধু জানিয়ে গেলেন, ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে এখনও কিছুই ঠিক হয়নি৷

- Advertisement -

এদিন প্রস্তুতিতে নেটে আগুন ঝড়াতে দেখা গেল মিচেল জনসনকে৷ অন্য দিকে বল হাতে কামাল দেখালেন সুনীল নারিন৷ পাকিস্তান ক্রিকেট লিগে তাঁর বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও নাইট জার্সিতে সুনীল, বোলিং ভঙ্গি নিয়ে সমস্যায় পড়বেন না বলে মত কাটিচের৷ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ফিরে গিয়ে বোলিং অ্যাকসনের সমস্যা শুধরে এসেছেন বলেই জানালেন নাইট কোচ৷

অন্যদিকে দলে এবারে নতুন-পুরনো মিলিয়ে একাধিক বিকল্প রয়েছে বলে মত কাটিজের৷ নতুনদের মধ্যে মাভি-নাগারকোটিরা দলের সম্পদ বলে মনে করছেন তিনি৷ নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে দীনেশের ইনিংস দেখার পর নাইট জার্সিতেও দীনেশের থেকে এমন ইনিংস পাওয়া যাবে বলে আশাবাদী কাটিচ৷

বৃহস্পতিবার কলকাতা এসে পৌঁছল রয়্যাল চ্যাঞ্চেজার্স ব্যাঙ্গালুরু দল৷ তবে অধিনায়ক কোহলি অবশ্য দলের সঙ্গে এদিন সিটি অফ জয়তে এসে পৌঁছাননি৷ শুক্রবার কলকাতায় এসে পৌঁছনোর কথা বিরাটের৷

Advertisement ---
---
-----