তর্পণ করতে গিয়ে বেআইনি বালি পাচার রুখলেন জেলাশাসক

স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: অবৈধ ভাবে বালি চোরাচালানকারীদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ালেন অতিরিক্ত জেলাশাসক কৌশিক নাগ। সকালে নদীতে তর্পণ করে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে দেখেন, বালি মাফিয়ারা অবাধে ট্রাক্টর ও নৌকা করে নদীতল থেকে বালি তুলে তা পাচার করছে।

কর্মই ধর্ম এই নীতিতে বিশ্বাসী ডাব্লিউবিসিএস কৌশিক নাগ তা দেখে আর দশ জনের মতো এড়িয়ে যেতে পারেননি। তিনি তৎক্ষণাৎ বালুরঘাট থানায় ফোন করে পুলিশ ডেকে দুই বালি মাফিয়াকে গ্রেফতার, একটি ট্রাক্টর ও দুইটি নৌকা আটক করেন। নজির সৃষ্টকারী ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে।

বালুরঘাট শহরের মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া আত্রেয়ী নদী থেকে বহুদিন ধরেই অবাধে বালি তুলে তা পাচারের কারবার চলছে। বালুরঘাটের খিদিরপুর কংগ্রেসপাড়া চড়পাড়া সহ বেশ কয়েকটি এলাকা থেকে এই কারবার চালিয়ে বহুজনের “আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ অবস্থা”। সমাজবিরোধীও এই কারবারের অংশীদার রয়েছেন। খোদ জেলা প্রশাসনিক ভবন থেকে ঢিল ছোরা দুরুত্বে আত্রেয়ী সদর ঘাট ও সরোজসেতূ ঘাটে দিন দুপুরে প্রকাশ্যে এই কারবার চলছিল। গত বছর তৎকালীন জেলাশাসক সঞ্জয় বসু নিজে বালি মাফিয়াদের বিরুদ্ধে অভিযান চালালেও পরবর্তীতে অবস্থা যেই ককে সেই হয়ে দাঁড়ায়।

- Advertisement -

আজ মহালয়ার পূন্যলগ্নে তর্পণ করতে আত্রেয়ী সদর ঘাটে পৌঁছান অতিরিক্ত জেলাশাসক(ডিএলএলআরও) কৌশিক নাগ। সেখানে অবাধে নদী থেকে বালি পাচারের দৃশ্য দেখেন। কার অনুমতিতে এই কারবার চলছে সেব্যাপারে তিনি জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে বালি মাফিয়ারা উলটে তাঁকেই চোটপাট ও ভয় দেখাতে শুরু করে। এর পড়েই তিনি থানায় খবর দিয়ে পুলিশ ডেকে অবৈধ এই কারবারের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেন। গ্রেফতার করেন বালি মাফিয়া রাজু মিশ্রা সমেত দুইজনকে।

Advertisement ---
---
-----