পুরোহিতদের পর কেষ্টোর গড়ে সম্বর্ধনা আদিবাসী মোড়লদের

স্টাফ রিপোর্টার, বোলপুর: পুরোহিতদের পর এবার আদিবাসীদের কাছে টানতে মরিয়া জেলা তৃণমূল নেতৃ্ত্ব৷ তাই গ্রামের আদিবাসী মোড়লদের সম্মানিত করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

রবিবার বোলপুরের দলীয় কার্যালয়ে আদিবাসী সেলের সভা আয়োজন করা হয়। সেখানেই পরবর্তী আদিবাসী সম্মেনলের ঘোষণা করেন জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডল। পুজোর আগেই এই সম্মেলন হবে।

আরও পড়ুন- রাজ্যের সহযোগিতায় আধুনিকীকরণ শতবর্ষ প্রাচীন গ্রন্থাগারের

তৃণমূল সূত্রের খবর, জেলার আনুমানিক দুহাজার মোড়ল এই সম্মেলনে আমন্ত্রণ পাবেন। তাদেরকে ধুতি, ফতুয়া ও আদিবাসী পাগড়ি দেওয়া হবে।এছাড়াও আদিবাসী গ্রামগুলিতে ধর্মীয় অনুষ্ঠান করার স্থায়ী জায়গা করে দেওয়া হবে।

সম্মেলনের প্রস্তুতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে জেলার ব্লক সভাপতিদের৷ সমস্ত আদিবাসী গ্রামগুলিতে যোগাযোগ করে তার মোড়লদের আমন্ত্রণ জানানোর নির্দেশ দেওয়া হয় তাদের।

আরও পড়ুন- অটল স্মরণে বিজেপির পাশে মমতা

এছাড়াও, তিটি গ্রামে আদিবাসীদের আবাস যোজনার বাড়ি দেওয়া সংক্রান্ত দুর্নীতি থেকে ব্লকের নেতাদের বেরিয়ে আসতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷জেলা সভাপতির হুঁশিয়ারি, দুর্নীতিগ্রস্ত নেতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷

জানুয়ারি মাসে অর্থাৎ পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে বীরভূমের ডাকবাংলো মাঠে পুরোহিত সম্মেলনের আয়োজন করেছিলেন অনুব্রত মণ্ডল৷ জেলার ১৫ হাজার পুরোহিতকে ডেকে ম্যারাপ বেঁধে তাঁদেরকে গীতা, মণীষীদের ছবি ও অমৃতবাণী এবং পেটপুরে ভোজন করানো হয়েছিল৷

ঘোষণা করা হয়েছিল, সম্মেলনের পর প্রত্যেক পুরোহিতকে ১ টি করে গাভী দেওয়া হবে৷ এবার তাদের পাখির চোখ লোকসভা ভোট৷ তার আগে আদিবাসী গ্রামগুলিতে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে বীরভূমের তৃণমূল নেতৃত্ব।

অনুব্রতর পুরোহিত সম্মেলন। -ফাইল ছবি

 

Advertisement
----
-----