মশা নিধনে পথে নামলেন স্বয়ং জেলাশাসক

তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: ডেঙ্গু ও মশাবাহিত রোগ নিয়ন্ত্রণে ফের পথে নামলেন বাঁকুড়ার জেলাশাসক উমাশঙ্কর এস। বুধবার তিনি বাঁকুড়া সদর মহকুমা শাসক অসীমকুমার বালা, পুরপ্রধান মহাপ্রসাদ সেনগুপ্ত-সহ পুরসভার কর্মী-আধিকারিকদের সঙ্গে নিয়ে শহরের ১, ৬ ও ২০ নম্বর ওয়ার্ড পরিদর্শন করেন।

এদিন জেলাশাসক উমাশঙ্কর এস শহরের গোপীনাথপুর এলাকার পুকুরগুলি সংস্কারের নির্দেশ দেন। তা না করা হলে পুরসভার তরফে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি। একই সঙ্গে বেশ কয়েকটি বাড়িতে বড় বড় কন্টেনারে জল জমা করা ছিল।

আরও পড়ুন: সাংসদ সেলিমকে পাকিস্তানি মনে করছে বিজেপি

- Advertisement -

জেলাশাসকের নির্দেশে ওই বাড়ির মালিকদের জরিমানা সংক্রান্ত নোটিশ পাঠানো হচ্ছে। এদিন মোট ছ’জনকে খোলা পাত্রে, পরিত্যক্ত ফ্রিজে জল জমে থাকা-সহ বেশ কিছু কারণে জরিমানা করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

পরে জেলাশাসক উমাশঙ্কর এস জানান, আজ ডেঙ্গু বিষয়ে সচেতনতার উদ্দেশ্যে প্রচারের পাশাপাশি অভিযানে নামা হয়েছিল। বেশ কিছু জায়গায় বড় বড় কন্টেনারে জল জমা ছিল। বেশ কয়েকটি পুকুরেরও আশু সংস্কার প্রয়োজন। মালিকদের সে কথা জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: আটবছর পর কলকাতা লিগের রঙ সবুজ-মেরুন

সংস্কার না হলে ও কন্টেনারে জল জমে থাকা বাড়ির মালিকদের কাছে মহকুমা শাসককে জরিমানার নোটিশ পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান। এই ধরনের ঘটনায় ন্যূনতম ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা জরিমানা করা হবে বলেও তিনি জানান।

ডেঙ্গু ও মশাবাহিত রোগ নিয়ন্ত্রণে জেলাশাসকের এই ধারাবাহিক অভিযানে খুশি শহরবাসী। সম্ভবত এই প্রথম কোনও জেলাশাসক নিজে শহরের ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ঘুরে এই ধরনের কাজ করছেন বলে তাঁরা জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: বাইক পাচারের বড়সড় চক্রের হদিশ মিলল বেলডাঙায়

Advertisement ---
---
-----