বিশ্বের ভালো চায় ভারত, তাই বন্ধুত্বেই জোর দিচ্ছে ট্রাম্প

ওয়াশিংটন: ভারত ও আমেরিকার কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে চর্চা হয় একাধিক মহলে। মোদীর সফরের আগেও তাই জল্পনা তুঙ্গে। তবে আমেরিকা যে ভারতকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে দেখছে, সেটা স্পষ্ট হয়ে গেল মার্কিন আধিকারিকের কথায়। ট্রাম্প প্রশাসনের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক জানালেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট এটা বুঝতে পেরেছেন যে বিশ্বের জন্য একটা শুভ শক্তি হল ভারত। আর ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করা গুরুত্বপূর্ণ বলেও মনে করছেন ট্রাম্প।

ওই অফিসার বলেন, ভারতের সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্ক যে খুব গুরুত্বপূর্ণ হবে সেটা বুঝতে পেরেছেন ট্রাম্প। তাই ভারতকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছে ওয়াশিংটন। এই প্রসঙ্গে, তিনি মোদীর সঙ্গে ট্রাম্পের টেলিফোনে কথোপকথনের কথাও উল্লেখ করেন। দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে ইতিবাচক কথোপকথন হয় বলেও জানান তিনি।

তবে মোদী পৌঁছনোর আগেই হোয়াইট হাউসের তরফ থেকে সাংবাদিকদের জানানো হয়েছে, এটা একটা স্পেশাল ভিজিট। ট্রাম্পের সঙ্গে ওয়ার্কিং ডিনারে যোগ দেবেন মোদী। এই প্রথম কোনও বিদেশি অতিথির সঙ্গে ডিনার করবেন ট্রাম্প। তাই মোদীর এই সফর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ইতোমধ্যেই আমেরিকার উদ্দেশে রওনা হয়েছেন মোদী। তিনদিনের সফরে ট্রাম্পের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করবেন তিনি।

- Advertisement -

ট্রাম্প প্রশাসনের আমলে এটাই হবে মোদীর প্রথম আমেরিকা সফর। তবে এর আগে ট্রাম্প ও মোদী বার তিনেক ফোনে কথা বলেছেন। এবারের বৈঠকে মোদীর সঙ্গে ট্রাম্পের সন্ত্রাস নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। এর আগে বারাক ওবামা প্রেসিডেন্টর থাকাকালীন তাঁর সঙ্গে আটবার বৈঠক করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনবার ওয়াশিংটনে গিয়েছিলেন মোদী। আর ২০১৫-র প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হয়ে এসেছিলেন ওবামা।

Advertisement ---
---
-----