লন্ডন: ইংল্যান্ডের মাটিতে সফল টেস্ট অভিষেক বললেই প্রাক্তন দুই ভারতীয় ব্যাটসম্যানের কথা মনে করে৷ একজন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় আর অন্যজন রাহুল দ্রাবিড়৷ ক্রিকেট মক্কায় ১৯৯৬ এই দুই ভারতীয় ব্যাটসম্যানের টেস্ট অভিষেক স্মরণীয় হয়েছে৷ দ্রাবিড়ের পরামর্শে দ্য ওভালে টেস্ট অভিষকটাও মন্দ হল না আর এক ভারতীয় ব্যাটসম্যানের৷

কেনিংটন ওভালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের শেষ টেস্টে অভিষক হয় অন্ধপ্রদেশের ডানহাতি ব্যাটসম্যান হনুমা বিহারীর৷ অভিষেকেই ব্যাট হাতে নজর কাড়লেন তিনি৷ কঠিন পরিস্থিতিতে ব্যাটিং করে ৫৬ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন বিহারী৷ সপ্তম উইকেটে রবীন্দ্র জাদেজার সঙ্গে ৭৭ রানের পার্টনারশিপ গড়ে ভারতের স্কোর ২৯২ রানে পৌঁছতে বড় ভূমিকা নেন বিহারী৷

Advertisement

সাফল্যের কারণ হিসেবে ফোনে দ্রাবিড়ের মূল্যবাণ পরামর্শের কথা উল্লেখ করে বিহারী বলেন, ‘অভিষেকের আগের দিন আমি দ্রাবিড়কে ফোন করেছিলাম৷ দ্রাবিড় আমার সঙ্গে প্রায় মিনিট দুয়েক কথা হয়েছিল৷ এতে আমার নার্ভাস কমে যায়৷ দ্রাবিড় হলেন ক্রিকেটের কিংবদন্তি৷ ব্যাটিংয়ে ওনার পরামর্শ আমার দারুণ কাজে দিয়েছে৷ দ্রাবিড় আমাকে বলেছিল নিজের দক্ষতা মত ব্যাটিং করতে৷ তবে টেম্পাটমেন্ট ঠিক রাখতে বলেছিলেন৷ কারণ ইন্ডিয়া-এ দলের হয়ে খেলার সময় আমি ওনার কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি৷’

তবে ইনিংসে প্রথম দিকে জেমস অ্যান্ডরসন ও স্টুয়ার্ড ব্রডকে ফেস করতে গিয়ে প্রথম দিকে একটু নার্ভাস লাগচ্ছিল৷ তিনি বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে প্রথম দিকে আমি একটু চাপে ছিলাম৷ কারণ ওরা দু’জনেই বিশ্বমানের বোলার৷ দু’জনের মিলিয়ে প্রায় ৯৯০টি উইকেট রয়েছে৷ তবে ধীরে ধীরে স্বচ্ছন্দভোধ করি৷ জাদেজার সঙ্গে আমার পার্টনারশিপটা ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ৷’

----
--