স্টাফ রিপোর্টার, ইংরেজবাজার: কন্যাসন্তানের জন্ম দেওয়া যে আজও অপরাধ, সেই কথাই ফের একবার প্রমাণ করল মালদহের একটি ঘটনা৷ পর পর কন্যাসন্তানের জন্ম দেওয়ায় গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে খুন করল শ্বশুরবাড়ির সদস্যরা৷

জানা গিয়েছে, মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর থানার শালালপুর গ্রামের ঘটনা এটি৷ বালুরঘাট গ্রামের বাসিন্দা তানজিমা বিবির সঙ্গে ছয় বছর আগে বিয়ে হয় শালালপুরের নেহারুল শেখের সঙ্গে৷ তাদের দুটি কন্যাসন্তান রয়েছে৷

দ্বিতীয় কন্যা সন্তানের জন্মের পর থেকেই তনজিমার ওপর অত্যাচার শুরু করে তার স্বামী এবং শ্বশুরবাড়ির অন্যান্যরা৷ গতকাল তাকে শ্বাসরোধ করে খুন করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ৷
ঘটনার তদন্ত চলছে৷

পড়ুন: খালের জলে উদ্ধার এক শিশু ও ব্যক্তির দেহ

এদিকে, গত রবিবার মালদহে, ব্যবসায়ীর টাকা লুঠের চেষ্টায় বাঁধা দিতে গিয়ে আক্রান্ত হয় দুই ভাই। ঘটনাটি ঘটেছে মালদহর ইংরেজবাজার থানার যদুপুর কমলাবাড়ি সুস্থানী মোড় এলাকার স্টেটব্যাঙ্কের সামনে। আহত আব্দুল রহিম মালদহ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনার তদন্তে নামে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।

জানা যায়, আব্দুল রহিম ও তাঁর ভাই ঘটনার দিন এলাকায় এস বি আই ব্যাঙ্কের এটিএমে টাকা তুলতে যায়। সেখানেই দেখতে পায় এটিমের ভিতরে বেশ কয়েকজন বসে রয়েছে। তাঁদেরকে টাকা তোলার সময় বের হয়ে যেতে বলে। সেই মত তারা বেরিয়ে যায়।

এরপর দশ হাজার টাকা তুলে সাইদুল ইসলাম বেড়িয়ে আসতেই ওই দুষ্কৃতীরা তাঁকে ঘিরে ধরে টাকা ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। ঘটনা দেখতে পেয়ে দাদা আব্দুল ছুটে গিয়ে ভাইকে বাঁচাতে গেলে তাকেও বেধড়ক মারধর করে পালিয়ে যায়।

এলাকাবাসী দুই ভাইকে উদ্ধার করে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যায়। ভাইকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হলেও দাদা চিকিৎসাধীন। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

 

https://youtu.be/FnDMXydadp4

----
--