স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ইঞ্জেকশনের ভয়ে হাসপাতালের ছাদ থেকেই ঝাঁপ দিলেন রোগী৷ চাঞ্চল্যকর, নজিরবিহীন এমনই ঘটনার সাক্ষী থাকল খাস কলকাতার আরজিকর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল৷

ঘটনার জেরে মস্তিষ্কে প্রচুর রক্তক্ষরণের জেরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় অসুস্থ রোগীকে হাসপাতালের ইনসেনটিভ কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে৷ হাসপাতালের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে৷ ঘটনায় কর্তৃপক্ষের কোনও গাফিলতি রয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখছে স্থানীয় টালা থানার পুলিশ৷

আরও পড়ুন- ‘জোর করে ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে শিখদের’

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, আহতের নাম পিংকি মজুমদার৷ বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়ায়। কয়েকদিন আগে বারাসত হাসপাতালে একটি পুত্রসন্তানের জন্ম দেন তিনি। সেখানে পিংকিদেবীর শারীরিক অবনতি হলে তাঁকে আরজিকর মেডিক্যালে স্থানান্তরিত করা হয়৷

হাসপাতাল সূত্রের খবর, চিকিৎসকের পরামর্শে এদিন পিংকিদেবীকে ইঞ্জেকশন দিতে যান নার্সেরা৷ তখনই তিনি বেড থেকে নেমে ছোটাছুটি শুরু করেন৷ নার্সরা রো তো বটেই অন্য রোগীরাও তাঁকে ধরতে ব্যর্থ হন৷ তখনই ছাদ থেকে ঝাঁপ দেন তিনি। ঘটনার জেরে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায়৷ বহুতল থেকে ঝাঁপ দেওয়ার জেরে তাঁর মস্তিষ্কে প্রচুর রক্তক্ষরণ হতে থাকে৷ দ্রুত তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন টালা থানার পুলিশ৷

----
--