মশালের আগুনে পুড়ল বাগান

কলকাতা: আক্রমণ-প্রতিআক্রমণের উত্তেজক ফুটবল৷ একঝাঁক সুযোগ নষ্ট দু’দলেরই৷ গোলও হল মুহূর্মুহূ৷ সব মিলিয়ে জমজমটা কলকাতা ডার্বি তুলে ধরল ভারতীয় ফুটবলের পরিচিত ছবিটাকে৷ এমন ডার্বির মহারণে এক গোলে পিছিয়ে থাকা অবস্থা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে মোহনবাগানকে ৩-২ গোলে পরাজিত করল ইস্টেবঙ্গল৷

ইস্টবেঙ্গলের হয়ে জোড়া গোল করেন রালতে৷ অপর গোলটি জবি জাস্টিনের৷ মোহনবাগানের হয়ে গোলদু’টি করেন আজহারউদ্দিন মল্লিক ও দিপান্ডা ডিকা৷ ম্যাচে লাল কার্ড দেখেন বাগানের কিংসলে৷

আরও পড়ুন: কলকাতা থেকে মুম্বই, ডার্বির উত্তাপ সর্বত্রই

ম্যাচের ১৩ মিনিটে ওমরের পাস থেকে গোল করে মোহনবাগানকে এগিয়ে দেন আজহারউদ্দিন৷ তবে খুব বেশিক্ষণ ব্যবধান ধরে রাখতে পারেনি বাগান৷ ১৭ মিনিটে গোল শোধ করে ইস্টবেঙ্গল৷ জবি জাস্টিনের পাস থেকে লাল-হলুদ শিবিরের হয়ে সমতাসূচক গোল করেন লালডানমাওয়াইয়া রালতে৷

প্রথমার্ধে আরও একটি গোল করে ইস্টবেঙ্গল৷ ৪৪ মিনিটের মাথায় রালতের পাস থেকে বাগানের জালে বল জড়ান জবি জাস্টিন৷ প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয় ইস্টবেঙ্গলের অনুকূলে ২-১ ব্যবধানে৷

ম্যাচের ঘটনাবহুল দ্বিতীয়ার্ধে আরও দু’টি গোল হয়৷ তবে হাফটাইমের পর খেলা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই কিংসলে লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন৷ আসলে ৫৯ মিনিটের মাথায় ম্যাচে দ্বিতীয়বারের জন্য হলুদ কার্ড দেখেন তিনি৷ ফলে রেফারি তাঁকে লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠ ছাড়ার নির্দেশ দেন৷

আরও পড়ুন: আবেগ নয় অঙ্কের লড়াই ডার্বি

দশজনের বাগানকে পেয়ে ইস্টবেঙ্গল দ্বিগুন উৎসাহে আক্রমণ শানায় বাগানঅর্ধে৷ যার তাৎক্ষণিক ফলও মেলে হাতেনাতে৷ ৬১ মিনিটে বাগান গোলরক্ষকের প্রতিহত করা বল ফিরতি শটে জালে জড়িয়ে দেন রালতে৷ ইস্টবেঙ্গল ম্যাচে ৩-১ গোলে এগিয়ে যায়৷

৭৫ মিনিটের মাথায় ডিকার গোলে মোহনবাগান ব্যবধান কমিয়ে ৩-২ করলেও বাকি সময়ে মরিয়া আক্রমণে উঠেও ম্যাচে সমতা ফেরাতে পারেনি তারা৷ ফলে এবারের মতো ডার্বিতে হার স্বীকার করে মাঠ ছাড়তে হয় শংকরলালদের৷

আরও পড়ুন: কালো পর্দার আড়ালে ডার্বির মহড়া

এই ম্যাচে জয়ের সুবাদে গোকুলাম ও মিনার্ভাকে টপকে লিগ টেবিলের পাঁচ নম্বরে উঠে আসে ইস্টবেঙ্গল৷ সাত ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট৷ সমসংখ্যক ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে মোহনবাগান পড়ে রইল আটেই৷ ৮ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে চেন্নাই সিটি৷

---- -----