শুরু থেকেই আমনা, নজরে নতুন স্ট্রাইকার

কলকাতা: সমস্যা অনেক, তবে চাপে নেই ইস্টবেঙ্গল৷ পাঠচক্র ম্যাচের আগে দলের উপর চাপ আসতে দিতে নারাজ লাল-হলুদ টিডি সুভাষ ভৌমিক৷ দলে সীমিত স্ট্রাইকার, চোটে জেরবার ডিকা৷ জ্বর সারিয়ে মাঠে ফিরলেও জবি জাস্টিন এখনও ম্যাচফিট নন৷ মঙ্গলবারের ম্যাচে যদিও তাঁর জন্য শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন বলে জানালেন টিডি৷ গোলকানা গগনদীপকে নিয়েও চাপ বাড়ছে৷ এতকিছুর পরেও সুভাষ বলছেন, গেল গেল রব তোলার কিছু নেই৷

আরও পড়ুন- গো ব্যাক সুভাষ! চলল লাঠি চার্জ

অন্যদিকে শেষ ম্যাচে কাস্টমসের বিরুদ্ধে পয়েন্ট খোয়ানোর পরে অবস্থান থেকে সরে আসছেন সুভাষ৷ পাঠচক্র ম্যাচে সিরিয়ান মিডিও আল আমনাকে শুরু থেকেই খেলানোর পক্ষে মত দিচ্ছেন পোড় খাওয়া এই কোচ৷ কাস্টমস ম্যাচের পর আমনাকে পুরো ম্যাচ না খেলানো নিয়ে কর্তাদের সঙ্গেও টিডি’র মতপার্থক্য প্রকাশে এসেছিল৷ এরপরই এদিন আমনা ইস্যুতে সুর নরম সুভাষের৷ প্রস্তুতিতেও আমনার পাশে কাসিমকে অনেকটা জায়গা জুড়ে খেলতে দেখা যাচ্ছে৷ পাঠচক্র ম্যাচে ইস্টবেঙ্গলের মাঠমাঝে দুই বিদেশিকে জুটি বাঁধতে দেখা যেতে পারে৷ সেই সঙ্গে প্রতিপক্ষ পাঠচক্রকে হালকাভাবে নিচ্ছে না ইস্টবেঙ্গল থিঙ্কট্যাঙ্ক৷ এই পাঠচক্রের কাছেই ৭০ মিনিট পর্যন্ত আটকে গিয়েছিল মোহনবাগান৷ সেই ম্যাচের ভিডিও দেখেই হোমওয়ার্ক করে ছক সাজিয়েছেন লাল-হলুদ টিডি৷ বিপক্ষের উইং, মাঝমাঠ নিয়ে বাড়তি সতর্কতা শোনা গেল কোচের মুখে৷ সেই সঙ্গে এক ম্যাচ ব্যর্থ হওয়াতেই গেল গেল রব তোলার কিছু নেই বলেই মত সুভাষের৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন- অভিষেকেই ম্যাচের সেরা শংকর, পুরস্কার উৎসর্গ শিল্টনকে

কাস্টমস ম্যাচে আটকে যাওয়ায় ফেন্সিংয়ের ধারে ইস্টবেঙ্গল টিডিকে গো ব্যাক স্লোগান শুনতে হয়েছিল৷ পরে ক্লাবের বাইরে ঘোরাও করা হয়৷ সমর্থকদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশকে লাঠিচার্জ করতে দেখা যায়৷ ইস্টবেঙ্গল প্রস্তুতি শেষে সেই প্রসঙ্গে সুভাষ এদিন বলেন, ‘এক ম্যাচ পয়েন্ট হারাতে এখনই গেল গেল রব তোলার দরকার নেই৷ বহু টুর্নামেন্টে কোচিং করিয়েছি৷ চাপে পড়তে শিখিনি৷’

গগনদীপ ও জবি ছাড়া স্ট্রাইকার নেই ইস্টবেঙ্গলে৷ সমস্যা সমাধানে লাল-হলুদের নজরে দেশি স্ট্রাইকার৷ এদিন একসময়ে দুই প্রধানে খেলা সি এস সাবিথকে ইস্টবেঙ্গল প্রস্তুতি দেখা গেল৷ যদিও এখনই তাঁর সই পর্ব চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে কিনা সেই নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ সুভাষ৷ আইএসএলে কেরালা ব্লাস্টার্সের হয়ে খেলেছেন অভিজ্ঞ এই স্ট্রাইকার৷ গত মরশুমে সেকেন্ড ডিভিশন আই লিগে ওজোন এফসি হয়ে খেলেছেন সাবিথ৷

সেই সঙ্গে এদিন বিশ্বকাপার বিদেশি জনি অ্যাকোস্টা জিম করলেন৷ তবে কোস্টারিকান এই বিশ্বকাপার কবে মাঠে নামবেন তা এখনও জানাতে পারছেন না কর্তারা৷

Advertisement ---
---
-----