টোকিও: শীতের শুরু মানেই গৃহস্থীর রান্নাঘরে ভিড় করে হাজারো মরশুমি সবজি৷ যার মধ্যে অনেকেরই পছন্দের তালিকায় রয়েছে মুলো৷ আর, এই মুলোই এবার স্বীকৃতি পেল হার্ট-হেলদি ভেজিটেবল হিসেবে৷ গাজর, ব্রকোলি, পেঁয়াজের লিস্টে যোগ হল আরও একটি নাম৷ জাপানের গবেষক কাটসুকো কাজিয়া বলেন, ‘মনস্টার মুলো’এর মধ্যে থাকা উপাদানগুলি করনারি ব্লাড ভেসেল রক্ষা করতে সাহায্য করে৷ এছাড়া, হৃদরোগ ও স্ট্রোকের প্রবণতাকেও অনেকাংশে হ্রাস করে৷ কয়েক শতাব্দী ধরে জাপানের মাটিতে উৎপন্ন হয়ে চলেছে এই ‘মনস্টার মুলো’৷

২০০৩ সালে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ন্ড রেকর্ডে নাম ওঠে প্রায় ৬৩ পাউন্ডের একটি মনস্টার মুলোর৷ যেটিকে বিশ্বের সবচেয়ে ভারীতম মূলোর স্বীকৃতি দেওয়া হয়৷ মুলোতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের পরিমান থাকে যথেষ্ট বেশি৷ যা কমায় উচ্চ রক্তচাপকে৷ অনেক সময় রক্ত জমাট বেঁধে যায়, ফলে নানা শারীরিক জটিলতার মুখোমুখি হন সাধারণ মানুষ৷ এখনও অবদি গবেষণায় উঠে আসা উপাদানগুলির মধ্যে মনস্টার মুলো অন্যতম৷

গবেষকরা জানাচ্ছেন, অন্যান্য মুলোর থেকে মনস্টার মুলোর মধ্যে থাকা উপাদান গুলিই হার্টের অসুখের জন্য সর্বাধিক কার্যকরী৷ সম্প্রতি, গবেষণায় উঠে আসা তথ্য প্রকাশিত হয়েছে সংবাদ মাধ্যমে৷ অন্যান্য সবজির মধ্যেও মনস্টার মুলোর মধ্যে থাকা উপাদানগুলিকে খোঁজা করা হচ্ছে৷ যার ব্যবহারও মানুষকে করে তুলবে সুস্থ ও স্বাভাবিক৷ তাই, স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রার জন্য ভরসা করুন দৈনন্দিন ব্যবহৃত সবজির উপর৷

----
--