আজই ইদ পালন করা হবে দক্ষিণের এই রাজ্যে

নয়াদিল্লি: শনিবার দেশ জুড়ে পালন করা হবে খুশির ইদ। এমনই ঘোষণা করেছেন দিল্লির জামা মসজিদের শাহি ইমাম৷ বৃহস্পতিবার সারা দেশের কোথাও চাঁদ দেখা না যাওয়াতেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানানো হয়েছে৷

কিন্তু দেশেরই একটা বড় জায়গায় ইদ পালন হবে আজ। শুক্রবারেই দক্ষিণের রাজ্য কেরলে ইদ পালন করা হবে।

আরও পড়ুন- ১৬ তারিখ খুশির ইদ, জানালেন জামা মসজিদের শাহি ইমাম

শাহি ইমাম জানিয়েছেন ইদের চাঁদ শনিবার দেখা যাবে৷ সেদিনই তাই পালিত হবে খুশির ইদ৷ সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে শাহি ইমাম বলেছেন রমজানের শেষ হবে শুক্রবার৷ তারপরেই দেশ জুড়ে পালিত হবে খুশির ইদ৷

মূলত বৃহস্পতিবার চাঁদ না দেখা যাওয়ার কারণেই শনিবার ইদ পালনের ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু, কেরলের ক্ষেত্রে বিষয়টি ভিন্ন। কারণ দেশের দক্ষিণ প্রান্তের ওই রাজ্যের কোঝিকোড় এলাকায় বৃহস্পতিবার চাঁদ দেখা গিয়েছে। সেই কারণে কেরলে তলতি মাসে ১৫ তারিখ অর্থাৎ শুক্রবারেই পালন করা হবে ইদ উল ফিতর৷

পবিত্র রমজান মাসের শেষে আসে ইদ-উল-ফিতর, যা বিশ্বের মুসলিম ধর্মাবলম্বী মানুষ উদযাপন করেন। গোটা রমজান মাসের ২৯ বা ৩০ দিন ধরে চলে দিনভর উপোস, উপবাস ভঙ্গের ভোজকে বলা হয় ইফতার। একমাস পর ইসলামিক ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ঘোষিত হয় ইদের দিন৷ মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ একে অন্যকে আলিঙ্গন করে ইদের শুভেচ্ছা জানান, এবং বাড়ির ছোটদের জন্য থাকে ইদি, ছোট খাট অনেক উপহারে সেদিন ভরে ওঠে মন৷

আরও পড়ুন- রমজান মাসে মসজিদে দুষ্কৃতির হামলায় মৃত দুই

ইদ উপলক্ষ্যে বিশেষ খাওয়াদাওয়ার আয়োজন তো থাকেই, এবং এই জিভে জল আনা খাদ্যের মধ্যে প্রধান হলো বিরিয়ানি, হালিম, নল্লি নিহারি, সিমুই, মটন কলজে এবং নানা প্রকারের কাবাব। ইদের বিশেষ পোষাকও থাকে — সাধারণত পুরুষদের ক্ষেত্রে কুর্তা পাজামা এবং মহিলাদের ক্ষেত্রে শারারা বা সালোয়ার-কামিজ, সঙ্গে হিজাব।

ছবি- ফাইল

দিল্লির ইমাম জানিয়েছেন ইদের তারিখ নির্ধারিত হয় চাঁদের অবস্থান দেখে। তাই প্রায় প্রতিবছরই তারিখ শেষ মুহূর্তেই ঘোষিত হয়ে থাকে। এবছর ইদের তারিখ নিয়ে জল্পনা আগে থেকেই ছিল৷ এবার সেই জল্পনার অবসান ঘটিয়ে শাহি ইমাম জানালেন ১৬ জুনেই ভারতে পালিত হবে ইদ উল ফিতর৷ এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম অবশ্য দক্ষিণের রাজ্য কেরল।