”একটা পটকাও কোথাও আমাদের লোকজন ফাটায়নি”

    স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: শাসকদল নির্বিঘ্নে ভোট চায়। হবেও তেমনটাই। বিরোধীদের কপালে ফক্কা ছাড়া আর কিছুই জুটবে না। শেষবেলার প্রচারে এভাবে দলীয় কর্মীদের চাঙ্গা করে গেলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। বারাকপুর–২ ব্লকে বিলকান্ডা–১ ও বিলকান্দা–২ গ্রামপঞ্চায়েতে শনিবার সভা করেন তিনি।

    উত্তর ২৪ পরগনার জেলা তৃণমূল সভাপতি তিনি। তাই শেষ দিনের প্রচারে নিজের জেলাকে বাদ দেননি। এদিনের প্রচারে জ্যোতিপ্রিয় বলেন, “আমরা সরকারে আছি।সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন আমাদের কাম্য। একটা পটকাও কোথাও আমাদের লোকজন ফাটায়নি।”

    এরপরই তিনি বিরোধী শিবিরে তোপ দেগে বলেন, “ওদের হামলায় আমাদের দলের চারজন খুন হয়েছেন। দু’জন গুলিবিদ্ধ। এই জেলায় কিন্তু কোনও বিরোধী দলের কর্মীর মৃত্যু হয়নি।” জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, সরকার অবাধ শান্তিপূর্ণ ভোট চায়। “নিরাপত্তার স্বার্থে আমার ১০জন নিরাপত্তারক্ষী সরকার তুলে নিয়েছে”, বলেন জ্যোতিপ্রিয়।
    এরপরই তাঁর বক্তব্য, “এই জেলায় বিরোধীরা খাতা খুলতে পারবে না। ওরা বিগ জিরো হবে পাবে।

    - Advertisement -

    জেলা পরিষদ বা পঞ্চায়েত সমিতির কথা ছেড়েই দিন। গ্রামপঞ্চায়েতে মেরে কেটে কোথাও দুই, একটা কোথাও তিনটে আসন পাবে। ১৯৯টি গ্রামপঞ্চায়েতের একটাও বিরোধীরা পাবে না। মানুষ উন্নয়নের সঙ্গে রয়েছে।”

    কার্যত কটাক্ষের সঙ্গে জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, “আমরা মানুষের সঙ্গে ফুটে রয়েছি আর বিরোধীরা কোর্টে রয়েছে।” তাঁর বক্তব্য পথেঘাটে মানুষের সঙ্গে তৃণমূল যেভাবে রয়েছে বিরোধীরা তার সিকিভাগ সময়ও সাধারণ মানুষকে দেন না। তাই এ জেলায় তৃণমূলই যে মানুষের একমাত্র পছন্দ তা হলফ করে বলতে পারেন উত্তর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি।

    Advertisement
    ---