মুম্বই: বিশ্বের সবথেকে বেশি ওজনের মহিলার ওজন এবার কমতে চলেছে৷ ইমান আহমেদ৷ ইতিমধ্যেই একটি পরিচিত নাম৷ তাঁর ওজনের জন্যই বারবার তিনি খবরের শিরোনামে আসেন৷ মুম্বইয়ে তাঁর চিকিৎসাও শুরু হয়৷ গত একমাসে তাঁর ওজন ক্রমাগত কমতে শুরু করে৷ সার্জারি এখনও হয়নি৷ তবে এখনই তার ওজন ১২০কিলো কমে গিয়েছে৷ চিকিৎসকেরাও তাই খুশি সমগ্র বিষয়টিতে৷ আর এদিকে ওজন কমে যাওয়ার ফলে কিছুটা হলেও স্বাভাবিক ছন্দ ফিরে পেয়েছে ইমান৷ এখন তিনি নিজে নিজেই ওঠা-বসা করতে পারছেন৷

আরও পড়ুন: অফিসে বসেই ওজন কমানোর পাঁচ উপায়৷

জানা যায়, তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রেই বেশ সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়৷ মুম্বই বিমানবন্দরে পৌঁছনর পর, ইমানকে নামাতে গিয়েও বেশ সমস্যা হয়৷ অ্যাম্বুলেন্সের পরিবর্তে লরির মতো এক যানে করে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, তাঁর ব্যারিআট্রিক সার্জারি করা এখনও বাকি৷ আশা করা যাচ্ছে, এমআরআই মেশিনে ফিট করার মতো চেহারা আগামী মাসেই হয়ে যাবে ইমানের৷

আরও পড়ুন: ওজন কমাবে কলার খোসা

উল্লেখ্য, জন্মের সময় তাঁর ওজন ৫কেজি ছিল৷ ১১বছ বয়সে হঠাৎই তাঁর ওজন বাড়তে শুরু করে৷ এর ফলে তাঁর মধ্যে বাসা বাঁধতে থাকে নানা ধরনের অসুখ৷ অবস্থা এমনই করুণ হয়ে ওঠে যে পরের ২৫বছর সে তার বাড়ি থেকে বেরোতে পর্যন্ত পারেনি৷ এখন তাঁর বয়স ৩৬৷ এরইমধ্যে ইমানের ডায়াবেটিজ, কিডনি ডিসঅর্ডার, থাইরয়েড, ফুসফুসের সমস্যা এমনই নানা ধরনের অসুখ রয়েছে৷ ওজন না কমালে ছিল প্রাণহানির আশঙ্কাও৷ অনেকটাই ওজন কমেছে ইমানের৷ সম্পূর্ণ চিকিৎসার পর যে স্বাভাবিক একটা জীবন লাভ করবে, এমনই প্রত্যাশা অনেকেরই৷ সমগ্র বিষয়টিতে ইমান যে খুশি তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না৷

----
--