বর্ধমানে ইঞ্জিনিয়রের রহস্য মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: বিয়ের মুখে রহস্যজনকভাবে আত্মঘাতী হলেন ইঞ্জিনিয়র৷ ঘটনাস্থল থেকে পাওয়া গিয়েছে একটি সুইসাইড নোটও৷ তাতে পরিজনদের উদ্দেশ্যে লেখা ‘‘আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়৷ তোমাদের এভাবে কষ্ট দেওয়ার জন্য আমাকে ক্ষমা করে দিও৷’’ ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বর্ধমানের আঁকরবাগান টিকরহাট এলাকায়৷

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ইঞ্জিনিয়রের নাম শেখ সাবির আলি৷ তিনি সাগরদিঘি এলাকায় চাকরি করতেন। ঠিক কি কারনে আত্মঘাতী হলেন তা নিয়ে ধন্দে পরিবারও৷ পুলিশ দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে৷

মৃত যুবকের বাবা সইফুদ্দিল আলি বলেন, ‘‘সামনেই ছেলের বিয়ে ছিল৷ রেজিস্ট্রিও হয়ে গিয়েছে৷ আগের রাতেও একসঙ্গে গল্প করেছি৷ কিন্তু তেমন অস্বাভাবিক কোনও আচরণ দেখতে পাইনি৷’’ ঘটনার জেরে শোকে ভেঙে পড়েছে পরিবারটি৷ প্রতিবেশীরাও জানান, এলাকায় হাসিখুশি ছেলে হিসেবেই পরিচিত ছিল সাবির৷ স্বাভাবিকভাবেই সে কেন আত্মঘাতী হল বুঝে উঠতে পারছেন না প্রতিবেশীরাও৷

- Advertisement -

এদিন অনেক বেলা পর্ৎন্ত সে ঘরের দরজা না খোলায় পরিজনদের সন্দেহ হয়৷ অনেক ডাকাডাকির পরও দরজা না খোলায় তাঁরা দরজা ভাঙেন৷ দেখেন ঘরের ফ্যান থেকে গলায় ফাঁস লাগানো দেহ ঝুলছে৷ বিছানায় রাখা একটি ছোট্ট নোট৷ সেই সুইসাইড নোটে, ‘‘আত্মহত্যার জন্য কেউ দায়ী নয়’’ বলে দাবি করা হয়েছে৷

Advertisement ---
---
-----