কলম্বিয়াকে হারিয়ে কোয়ার্টারে ব্রিটিশরা

মস্কো: কলম্বিয়াকে ছিটকে দিয়ে শেষ আটে পৌঁছল ইংল্যান্ড৷ ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে ৫৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করেন ইংল্যান্ডের তারকা ফুটবলার হ্যারি কেন৷ ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ইংল্যান্ড৷ এরপর ম্যাচের নির্ধারিত ৯০ মিনিট এগিয়ে থেকেই শেষ করে ইংল্যান্ড৷ অতিরিক্ত সময়ের বেশ কয়েক মিনিট পেরিয়ে যায়৷ কেনরা হয়ত ধরেই নিয়েছিলেন তারা কলম্বিয়াকে ছিটকে শেষ আটে পা রাখছেন৷ কিন্তু অঘটন ঘটিয়ে অতিরিক্ত সময়ের তিন মিনিটে কলম্বিয়ার হয়ে সমতা ফেরান মিনা৷ এরপর পেনাল্টি শুট আউটে ৪-৩ ম্যাচ পকেটে পোরে ইংল্যান্ড৷ পেনাল্টি শুট আউটে চার নম্বর গোলটি করে দলকে জয় এনে দেন ইংল্যান্ডের মিড ফিল্ডার এরিক ডায়ার৷

এবার যেন ইংল্যান্ড থেকেই প্রস্তুতি নিয়ে রাশিয়াতে পা রেখেছেন কেনরা৷ অন্য বড় দলগুলি যেখানে বিশ্বকাপের সফর থেকে বেরিয়ে গেছে কিংবা এগিয়ে গেছে অঘটনের মাধ্যমে৷ সেখানে গ্রুপ পর্যায় থেকেই ধারাবাহিক ইংল্যান্ড৷ প্রতিটা ম্যাচে নিজেদের উজাড় করে দিচ্ছেন হ্যারি কেন, রহিম স্টারলিং ,অ্যাশেল ইয়ং-রা৷ প্রি-কোয়ার্টারে কলম্বিয়ার বিরুদ্ধে একই রকম ধারাবাহিকতা দেখালেন ব্রিটিশ ফুটবলাররা৷ এর আগে বিশ্বকাপ মঞ্চে তিনবার টাইব্রেকারের মুখে পড়েছিল ইংল্যান্ড৷ প্রতিবারই তাদের খালি হাতে ফিরতে হয়েছিল৷ কিন্তু এবার গল্পটা বদলে দিলেন হ্যারি কেন ব্রিগেড৷

মঙ্গলবারে টাইব্রেকারের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই বাদ দিলে বাকি ম্যাচ কিন্তু অপেক্ষাকৃত স্লো ছিল৷ আক্রমণে ইংল্যান্ড এগিয়ে থাকলেও প্রথমার্ধে গোল করার তেমন ভালো সুযোগ আসেনি৷ বরং মাঠে উত্তেজনা ছড়িয়েছে দুই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে রেষারেষি৷ এমনই এক ঘটনায় জর্ডান হেনডারসনকে মাথা দিয়ে ধাক্কা মেরে হলুদ কার্ড দেখেন উইলমার বাররিওস৷ ম্যাচে ফাউল হয়েছে ৩৬ বার৷ মোট ৮ জন খেলোয়াড় হলুদ কার্ড দেখেছেন, যার মধ্যে কলম্বিয়ার ছয়জন৷ ম্যাচের ৫৭ মিনিটে কেনের ওপর পেছন থেকে চড়াও হয়ে ইংল্যান্ডকে পেনাল্টি উপহার দেন কার্লোস সানচেজ৷ এর জন্য হলুদ কার্ডও দেখেন তিনি৷ ৫৭তম মিনিটে স্পটকিক থেকে টুর্নামেন্টে নিজের ষষ্ঠ গোলটি করেন রাশিয়ার বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ গোলদাতা কেন৷

- Advertisement -

টাইব্রেকারে ইংল্যান্ডের পক্ষে প্রথম গোলটি করেন কেন৷ দ্বিতীয় শট বিপক্ষের জালে জড়িয়ে দেন র‌্যাশফোর্ডও৷ ইংল্যান্ডের হয়ে তৃতীয় ফুটবলার হেনডারসনের শট বাঁ-দিকে ড্রাইভ দিয়ে বাঁচিয়ে দেন কলম্বিয়ার গোলরক্ষক৷ এরপর কলম্বিয়ার উরিবে শট নিতে এসে বল গোলপোস্টের খুঁটিতে মারেন৷ ট্রাইপার  ইংল্যান্ডের চার নম্বর সুযোগটিকে গোলে পরিবর্তিত করেন৷ শেষমেশ ইংল্যান্ডকে শেষ আটে তোলেন ডায়ার৷ শনিবার সামারা এরিনাতে সুইডেনের মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড৷

Advertisement
---