এসএসকেএমে ‘গুরু’ জ্যোতি বসুর পাশেই প্রয়াত সোমনাথ

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সোমবার কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে প্রয়াত হলেন লোকসভার প্রাক্তন অধ্যক্ষ সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়৷ তাঁর মরদেহ দান করা হয়েছে এসএসকেএম হাসপাতালে৷ ২০১০ সালের ২০ জানুয়ারি রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুর মৃত্যুর পরও তাঁর দেহ দান করা হয়েছিল এই হাসপাতালে৷

১৯৬৮ সালে সিপিএম পার্টির সদস্য হন সোমনাথবাবু৷ ১৯৭১ সালে নির্দল প্রার্থী হিসেবে প্রথমবার সাংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন৷ ২০০৮ সালে সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়কে দল থেকে বহিষ্কার করে তৎকালীন সিপিএম নেতৃত্ব৷ এরপরও জ্যোতি বসুর সঙ্গে তাঁর গুরু-শিষ্যের সম্পর্ক বজায় ছিল৷ আট বছর পর আগেই সোমনাথ চট্টোপাধ্যায় তাঁর রাজনৈতিক গুরুকে হারিয়েছেন৷ সোমবার নিজের মৃত্যুর পর আবার গুরুর কাছেই ফিরে যাচ্ছেন তিনি৷

পড়ুন: “সংসদীয় গণতন্ত্রকে এক অন্য স্তরে নিয়ে গিয়েছিলেন সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়”

- Advertisement DFP -

এসএসকেএম হাসপাতাল সূত্রে খবর, ২০১০ সালের ২০ জানুয়ারি বার্ধক্যজনিত রোগে জ্যোতি বসুর মৃত্যুর পর এসএসকেএম হাসপাতালের অ্যানাটমি বিভাগে তাঁর দেহ রাখা হয়৷ আর আট বছর পর প্রয়াত সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়দের দেহ হাসপাতালের ইউনিভার্সিটি কলেজ অফ মেডিসিন বিল্ডিং এর অ্যানাটমি বিভাগেই রাখা হবে৷ অর্থাৎ এসএসকেএম হাসপাতালে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা কমিউনিস্ট নেতা জ্যোতি বসুর দেহর পাশেই রাখা হবে প্রয়াত লোকসভার প্রাক্তন অধ্যক্ষ৷ তাঁর চোখ দু’টি দেওয়া হয়েছে প্রিয়ংম্বদা বিড়লা আই হাসপাতালকে৷ আর এসএসকেএম হাসপাতালে ত্বক সংরক্ষণ করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement
----
-----