কোপেনহেগেন : ইচ্ছা হলেও কখনোই সারা পৃথিবী ঘুরে দেখা হয় না। গুগল বা ফেসবুকে কারোর তোলা ছবি দেখেই মনকে সান্তনা দিতে হয়। তবে এই পৃথিবী ঘুরে দেখার ইচ্ছা এবার পূরণ হতে চলেছে সমস্ত ভ্রমনপিপাসুর। পায়ে হেঁটেই হয়ে যাবে বিশ্বভ্রমণ। খরচও বেশি নয়। সময়ও লাগবে না বেশী। হবে ইচ্ছা করে ইচ্ছাপূরণ। গল্প মনে হলেও ইহাই বাস্তব।

আসলে এই পৃথিবী আছে ডেনমার্কে। আবার অবাক হলেন ! ভাবছেন গোটা পৃথিবী কিভাবে একটা দেশে থাকবে? তবে সেটাই সম্ভব করেছে হোব্রো শহরে ভারদেনস্কোরটেট নামের একটি শহর। ম্যাপের ডালি সাজানো হয়েছে সেই লেকে। লেকের নাম লেজ ট্রুব। লেকের মধ্যেই পায়ে হেঁটে ঘুরে নিতে পারবেন আফ্রিকা থেকে আমেরিকা। অস্ট্রেলিয়া থেকে আফগানিস্তান হয়ে পা রাখতে পারবেন ইংল্যান্ডে।ডেনমার্ক নামে একটি জায়গাও আছে। লম্বায় ১৪৮ ফুট ও চওড়ায় ২৯৫ ফুট লেকটি ঘুরে দেখতে খরচা মাত্র ১০ পাউন্ড (ভারতীয় মুদ্রায় ৮৮৯ টাকা)।

Advertisement

১৯৪৪ সালে লেকের মধ্যে পৃথিবীর ম্যাপ বানানোর এই অভিনব পরিকল্পনাটি মাথায় আসে সোরেন পলসেন নামে এক ব্যক্তির। পারিবারিক ফার্মের উপর তৈরি করতে শুরু করেন তাঁর প্রকল্প। ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত চলে তাঁর কাজ। তিল তিল করে তৈরি হয় পৃথিবীর মধ্যেই টুকরো এক পৃথিবীর। মাটি ও পাথর দিয়ে লেকের মধ্যে পৃথিবীর ম্যাপ তৈরি হয়। বর্তমানে এটি পর্যটকের ঘোরার অন্যতম আকর্ষণ। পৃথিবী হাঁটাপথে ঘুরে দেখার পাশাপাশি নৌকোবিহারও করেন পর্যটকরা। খেলেন গলফও। সবমিলিয়ে পর্যটকদের জন্য টোটাল কমপ্লিট প্যাকেজ এই মিনি পৃথিবী।

----
--