বিখ্যাত ডিজাইনারের আত্মহত্যায় শোকস্তব্ধ সিনেমহল

লস এঞ্জেলস : আমেরিকান ফ্যাশন ডিজাইনার কেট স্পেডদের দেহ, তাঁর নিউ ইয়র্কের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে৷ সূত্রের খবর, মঙ্গলবার কেটের হাউজকিপার ডিজাইনারের মৃত অবস্থায় দেখতে পায় তাঁকে৷ ৫৫ বছর বয়সী এই ফ্যাশন ডিজাইনারের মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলেই অনুমান করছে পুলিশ৷ স্পেডের দেহের পাশে একটি স্যুইসাইড নোটও পাওয়া গিয়েছে৷

আত্মহত্যার কারণ সেভাবে জানা যায়নি৷ স্যুইসাইড নোটে কী লেখা রয়েছে, তাও এখন প্রকাশ্যে আসেনি৷ তবে ইভাঙ্কা ট্রাম্পের ট্যুইটে খানিক আঁচ করা যাচ্ছে, যে কেটে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: সাদা-কালো জমানার নার্গিস এবার রঙিন দুনিয়ায়!

বহু হলিউড তারকা কেটের ভাল বন্ধু ছিলেন৷ তাঁরা প্রত্যেকেই কেটের আকস্মিক মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁরা প্রত্যেকেই শোক প্রকাশ করেছেন৷ ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে লিখেছেন, “কেট স্পেডের আকস্মিক মৃত্যু ভীষণ যন্ত্রনাদায়ক৷ আমরা কেউ অন্যের দুঃখটা সঠিকভাবে অনুভব করতে পারি না৷ আপনাদের সবাইকে বলছি, যদি মানসিক অবসাদে আক্রান্ত হন, তাহলে সাহায্যের হাত বাড়ান৷ আত্মহত্যা কোনও নিস্পত্তি নয়৷”

প্রাক্তন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিংটনের মেয়ে চেলসি ক্লিংটনও কেটের ব্র্যান্ডের ব্যাগ ব্যবহার করতেন৷ তাঁর স্মৃতির কথা শেয়ার করে জানান, “আমার দিদিমা আমায় প্রথম ‘কেট স্পেড’র ব্যাগ উপহার করেছিলেন৷ সেই সময় আমি কলেজে পড়তাম৷ এখনও আমার কাছে ব্যাগটা রয়েছে৷ কেটের পরিবারের জন্য সহানুভুতি রইল৷”

আরও পড়ুন:  যৌন হেনস্থার শিকার ‘বিগ বস’ প্রতিযোগী

কেটের পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ কোনও মন্তব্য করেননি৷ কেবল কেটের দেবর, ডেভিড স্পেড ট্যুইটারে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করে লিখেছেন, “কেট আমার খুবই কাছের মানুষ ছিল৷ কেটের মতো সুন্দর মহিলা আমি খুব কম দেখেছি৷ বেশ মজার মানুষ ছিল ও৷”

এই তারকারা ছাড়াও আরও অনেকে কেটের মৃত্যু নিয়ে দুঃখপ্রকাশ করেছেন৷ অধিকাংশ মানুষের এখনও বিশ্বাসই হচ্ছে না যে কেট আর নেই৷

৮০টর দশকে ম্যানহ্যাটানের, ‘মেডেমইজেল’ ম্যাগাজিনের হাত ধরে নিজের কেরিয়ার শুরু করেছিলেন কেট৷ ১৯৯৩ সালে কেট তাঁর স্বামী অ্যান্ডি স্পেডের সঙ্গে ‘কেট স্পেড’ নামক একটি হ্যান্ডব্যাগের ব্র্যান্ড লঞ্চ করেছিলেন৷ লঞ্চ করার পরের বছরের মধ্যেই অ্যান্ডি এবং কেট বিয়ে করেন৷ তাঁদের ১৩ বছর বয়সী মেয়েও আছে, ফ্র্যান্সিস বিট্রিক্স স্পেড৷ ফ্র্যান্সিসকে মানুষ করার জন্য, মেয়েকে সময় দেওয়ার জন্য কেট তাঁর কোম্পানিকে ২.৪ বিলিয়ন ডলারে বেঁচে দিয়েছিলেন৷ তারপর দীর্ঘ কয়েক বছর পর ২০১৬ সালে ‘ফ্র্যান্সিস ভ্যালেন্টাইন’ নামক জুতোর এবং হ্যান্ডব্যাগের ব্র্যান্ড লঞ্চ করেছিলেন৷ নিউ ইর্য়কে কেটের প্রায় ১৪০ টি রিটেল শপ এবং হ্যান্ডব্যাগের আউটলেট রয়েছে৷

Advertisement ---
---
-----