স্টাফ রিপোর্টার, হুগলি: মনোনয়ন পর্বের শুরু থেকেই শাসক দলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ উঠছে। আর সেই সন্ত্রাসের জেরে বিরোধী হেভিওয়েট নেতারাও বাদ যাচ্ছেন না। এবার সেই তালিকায় চলে এল ফরোয়ার্ড ব্লকের প্রাক্তন বিধায়ক বিশ্বনাথ কারকের নাম।

শনিবার দলের নেতা-করর্মীদের নিয়ে মনোনয়ন পত্র তুলতে যাওয়ার সময় তিনি আক্রান্ত হন বলে অভিযোগ। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, তাঁর মুখে কালি লেপে দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

আরও পড়ুন: ভোটার তালিকা থেকে মোছা হল ছ’লক্ষ নাম

এদিন হুগলির আরামববাগে ঘটনাটি ঘটেছে। সেখানকার এসডিও অফিসে জেলা পরিষদের আসনের জন্য মনোনয়ন জমা দিতে যাচ্ছিলেন তিনি। তখনই ওই অফিসের চত্বরেই তাঁর মুখে কালি লেপে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, মহিলাদেরও ছাড়া হয়নি। তাঁদেরও মারধর করা হয়। শ্লীলতাহানি করা হয় বলে অভিযোগ।

প্রসঙ্গত, মনোনয়নে গিয়ে বাম-নেতাদের আক্রান্ত হওয়ার এটি চতুর্থ ঘটনা। দু’টি ঘটনা ঘটে বৃহস্পতিবার সেদিন একদিকে বীরভূমে মারধর করা হয় সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা রামচন্দ্র ডোম, অন্যদিকে বাঁকুড়ায় আক্রান্ত হন সিপিএম বিধায়ক অজিত রায়। পরদিন শুক্রবার পুরুলিয়ায় আক্রান্ত হন প্রাক্তন সিপিএম সাংসদ বাসুদেব আচারিয়া। তার পর শনিবার বিশ্বনাথ কারক।

আরও পড়ুন: প্রার্থী হওয়ার আশ্বাস মিলতেই ঘরে ফিরলেন মনিকা

এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ বামফ্রন্ট। তাদের তরফে এখনও কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি। অন্য দিকে তৃণমূল গোটা ঘটনার কথা অস্বীকার করেছে

----
--