ইতিহাসের দোরগোড়ায় নোভাক-ফেডেরার

লন্ডন: নোভাক জকোভিচ ও রজার ফেডেরার৷ রবিবার অল ইংল্যান্ডের সেন্টার কোর্টে দুই তারকার সামনে ইতিহাস গড়ার হাতছানি৷ বিশ্বের প্রথম পুরুষ টেনিস তারকা হিসেবে অষ্টমবার উইম্বলডন খেতাব জয়ের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে ফেড এক্সপ্রেস৷ সেই সঙ্গে পিট সাম্প্রাসের আটটি উইম্বলডন ট্রফি জয়ের রেকর্ড ভাঙার সুযোগও রয়েছে৷ অন্যদিকে কিংবদন্তি বরিস বেকারের জোড়া মাইলফলক পিছনে ফেলতে বদ্ধপরিকর বিশ্বের এক নম্বর জকোভিচ৷ ৩০ বছর আগে প্রথমবার উইম্বলডনজয়ী বেকার তিনবারের চ্যাম্পিয়ন৷ ১৯৮৫-৮৬ সালে টানা দু’বার ট্রফি ঘরে তুলেছিলেন তিনি৷ এবার গুরুকে ছাপিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে ঘাসের কোর্টে বিশ্বের দু’ নম্বরের মুখোমুখি হতে চলেছেন জোকার৷

রবিবার সন্ধ্যে ছ’টায় নয়া ইতিহাস তৈরি হবে? নাকি ইতিহাসের পুরনাবৃত্তি ঘটবে? জোকার মনে প্রাণে চাইছেন ২০১৪ উইম্বলডন ফাইনালটারই ফ্ল্যাশ ব্যাক হোক৷ কারণ গতবার ১৭টি গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী ফ্রেডির বিরুদ্ধে পাঁচ সেটের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পরই দ্বিতীয় উইম্বলডনের মুকুট মাথায় তুলেছিলেন সার্বিয়ান তারকা৷ নিঃসন্দেহে ফেডেরারের চাহিদা ঠিক উল্টোটা৷ সবচেয়ে বয়স্ক খেলোয়াড় হিসেবে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিততে মরিয়া ৩৩ বর্ষীয় সুইস তারকা৷ কোর্টের নামার আগে অবশ্য দু’জনই পরস্পরকে সমীহ করছেন৷ জকোভিচ বলেন, ‘রজারের বিরুদ্ধে আগেও খেলেছি৷ ও আমার সবচেয়ে বড় প্রতিপক্ষ৷’ দশমবার টুর্নামেন্টের ফাইনালে পৌঁছনো ফ্রেডর বক্তব্য, ‘আমরা সবাই জানি ও (জকোভিচ) কতটা ভালো৷ আর একটা ধাপে ভালো খেলতেই হবে যাতে এই দু’সপ্তাহটা সেরা হয়ে থাকে৷ গতবারের হারের কথা ভুলে গিয়েছি৷ আরও একবার টুর্নামেন্টের ফাইনালে পৌঁছতে পেরেছি৷ আবার নোভাকের সঙ্গে লড়ব৷ এটাই বড় ব্যাপার৷’ ফ্রেডির আগে ১৯৭৫ সালে সবচেয়ে বেশি বয়সে (৩০) উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন আর্থার অ্যাশে৷

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক বিশ্বের এক নম্বর ও দু’নম্বর তারকার সাক্ষাতে এখনও পর্যন্ত ঠিক কী কী ঘটনা ঘটেছে৷

১. ২০০৬ সাল থেকে এখনও পর্যন্ত ৩৯বার সাক্ষাৎ ঘটেছে দু’জনের৷ যার মধ্যে ফ্রেডি এগিয়ে ২০-১৯-এ৷ গত দু’বারের সাক্ষাতে অবশ্য দু’বারই জয়ী জোকার৷

২. টেনিসের ওপেন এরায় সপ্তম টেনিসতারকা হিসেবে একই ক্যালেন্ডার বছরে প্রথমবার তিনটি গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনালে পৌঁছলেন জকোভিচ৷ ২০০৬, ২০০৭ ও ২০০৯ সালে এই কৃতিত্ব ছিল ফেডেরারের৷

৩. কোনও গ্র্যান্ড স্ল্যামে পুরুষ সিঙ্গলসের ফাইনালে ১০বার পৌঁছনোর নজির গড়েছেন ফেডেরার৷ সুইস খেলোয়াড় হিসেবে সিঙ্গলসে প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের মালিকও তিনি৷ এদিকে, বিশ্বের দ্বিতীয় টেনিস খেলোয়াড় হিসেবে পাঁচটি অস্ট্রেলিয়ান ওপেন খেতাব জিতেছেন জকোভিচ৷ রয় এমারসন সর্বোচ্চ ছ’টি ট্রফি জিতেছিলেন৷

----
-----