ঋষি দাস,বালুরঘাট: কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সামনেই বিজেপির দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল বালুরঘাট শহরের জেলা বিজেপি কার্যালয়। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন দুজন বিজেপি কর্মী। বুধবার দুপুরে জেলা বিজেপি কার্যালয়ে কর্মীসভায় যোগ দিতে আসেন কেন্দ্রীয় নেতা উপঞ্চানন রাউথ । সেই সময় জেলার বিজেপি নেতৃত্বর বিক্ষুব্ধ দলীয় নেতৃত্বর বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ করে গো-ব্যাক ধ্বনি তুলে প্রবল বিক্ষোভ  দেখাতে শুরু করে। এরপরে তাঁরা কর্মী সভায় প্রবেশ করে ওই একই অভিযোগ তোলে। এই বিক্ষোভের মুখে উপঞ্চানন রাউথকে কার্যত দিশেহারা পরিস্থিতিতে পরতে দেখা যায়। এই সময় জেলা নেতৃত্ব পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করলে বিক্ষুব্ধ গোষ্ঠীর সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এই সময় শুরু হয় ব্যাপক ভাঙচুর। 
যদিও, এই ঘটনায় কেন্দ্রীয় নেতা উপঞ্চানন রাউথ সংবাদ মাধ্যমের কাছে মুখ খুলতে না চাননি। দলের জেলা সভাপতি গৌতম চক্রবর্তী বিক্ষোভের কথাটি স্বীকার করে নিয়ে জানান, ওরা যে বিষয় নিয়ে অভিযোগ জানাচ্ছে তা পুরোটাই রাজ্য নেতৃত্বর পরামর্শের অনুযায়ী করা হয়েছে। এই ক্ষেত্রে আমাদের কোনও দায় নেই।
অপরদিকে, বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা মহাবীর সারঙ্গী জেলা নেতৃত্বর বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ তুলে বলেন, কোনও কারণ না দেখিয়ে দলের পুরনো কর্মীদের দল থেকে বহিস্কার করে দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি তিনি আরও বলেন যারা গরু পাচার ও অসামাজিক কাজের সঙ্গে জড়িত তাদের সাংগঠনিক পদে নিয়োগ করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় নেতাকে এই প্রতিবাদটাই আমরা জানাতে এসেছিলাম। কিন্তু, অভিযোগ জানাতে গেলে তাদের মারধর করে বের করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

----
--