করের টাকায় দাঁত তোলালেন অর্থমন্ত্রী

হায়দরাবাদ: করদাতাদের টাকায় দাঁতের চিকিৎসা করালেন ইয়ানামালা রামকৃষ্ণনদু। শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। অন্ধ্রপ্রদেশের অর্থমন্ত্রী ইয়ানামালা রামকৃষ্ণনদু সম্প্রতি সিঙ্গাপুরে গিয়ে রুট ক্যানেল ট্রিটমেন্ট করান। চিকিৎসার খরচ ২.৮২ লক্ষ টাকা। আর এই বিপুল অঙ্কের টাকা নির্দ্বিধায় ইয়ানামালা রামকৃষ্ণনদুকে দিয়েছে রাজ্য সরকার।

চলতি বছরের ১২ই এপ্রিল সিঙ্গাপুরের আজুরে ডেন্টালে তাঁর রুট ক্যানেল চিকিৎসা হয়। রাজ্যের ডাঃ এনটিআর বিদ্যা সেবা ট্রাস্ট ২৩শে অগস্ট এই টাকা পূরণ করে। জেনারেল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ডিপার্টমেন্ট সেক্রেটারি শ্রীকান্ত নাগুলাপাল্লি যিনি এর ছাড়পত্র দেন, তিনি জানান এই অর্থ মুল্যের জন্য অর্থমন্ত্রকের অনুমতির কোনো প্রয়োজন নেই। মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীদের বেতনের চিকিৎসাখাত থেকেই এই অর্থ দেওয়া হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী হিসেবে ইয়ানামালাই প্রথম যিনি অন্ধ্রপ্রদেশের দ্বিখন্ডনের আগের অর্থনীতি সম্পর্কে অবগত। বর্তমানে রাজ্য সরকার রাজধানী তৈরির জন্য ২০০০ কোটি টাকার দাবী জানিয়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশ ও তেলেঙ্গানাকে পৃথক করার জন্য কেন্দ্রের সাহায্য তারা প্রত্যাশা করছে। এপি রেওরগানাইজেশন অ্যাক্টের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় সরকার তাদের এই বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল।

- Advertisement -

অন্যদিকে চন্দ্রবাবু নাইডুর অমরাবতীকে হেলত হাবে পরিণত করার পরিকল্পনাকেও কটাক্ষ করেন অনেকে। ইয়ানামালা রামকৃষ্ণনদুর চিকিৎসার ভার বহন করেও সরকারকে নেটিজেনদের সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। অনেকে প্রশ্ন তোলেন হেলত হাবে পরিণত হওয়ার স্বপ্ন দেখছে অন্ধ্রপ্রদেশ আর সেখানে রুট ক্যানেল চিকিৎসার মতো সাধারন চিকিৎসার পরিকাঠামো নেই।

এদিকে এনটিআর বিদ্যা সেবা ট্রাস্টের চিফ এগজিকিউটিভ অফিসারের সঙ্গে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে সব মিলিয়ে প্রশ্ন ওঠে জনগণের দিন-রাতের পরিশ্রমের ফসল যে টাকা তা কি কোনো মন্ত্রী ব্যক্তিগত কাজে লাগাতে পারেন?

Advertisement ---
---
-----