স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : চার ঘণ্টার লড়াই শেষে নিভল বেহালার গুদামের আগুন। এমন খবরই জানা যাচ্ছে দমকলের সূত্রে। রাত ৯টা নাগাদ কাঠের গুদামে লেগে যাওয়া আগুনে এলাকা জুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছিল। কাঠের গুদাম হওয়ায় আগুন বড় আকার নিয়েছিল বলে জানাচ্ছে দমকল। তবে প্রথমেই বড় বাহিনী একসঙ্গে কাজ করায় বড় অগ্নিকাণ্ড থেকে রক্ষা করা গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

শুক্রবার রাত ৯টা নাগাদ আগুন লেগে যায় বেহালা বামাচরন রায় রোডের ওই কাঠ গুদামে। দমকলের ৭টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায়। তবে স্থানীয় সূত্রে খবর দমকল পৌঁছতে কিছুটা দেরী হয়েছিল। দমকলের পক্ষে জানানো হয়েছে, শক্তিশালী আগুন নেভাতে প্রথমেই বড় দল নিয়ে ঝাঁপিয়ে পরায় বিশেষ সমস্যা হয়নি। প্রায় তিন ঘণ্টা পরে রাত একটা নাগাদ আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় আগুন বড় হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। রাত ২টো নাগাদ আগুন নিভে যায় বলে জানিয়েছে দমকল।

তবে সাতটি ইঞ্জিনই ঘটনাস্থলে টানা কাজ করে গিয়েছিল। পকেট ফায়ার সম্পূর্ণ না নিভে যাওয়া পর্যন্ত সাতটি ইঞ্জিনই কাজ করেছে বলে জানানো হয়েছে। তবে আগুন নিভলেও জানা হায়নি ঠিক কি কারণে বা কিভাবে লাগে এই আগুন। দমকল সূত্রে জানানো হয়েছে, আরও কিছুটা সময় গেলে তবে তাঁরা এর তদন্তে নামবেন। দেখা হবে গুদামের ফায়ার সিস্টেম কতটা সুস্থ অবস্থায় ছিল। দেখা হবে কারখানার সমস্ত নথি পত্রও। প্রয়োজনে কারখানার মালিকের সঙ্গেও কথাবার্তা বলা হবে।

পুজোর আগে থেকেই আগুন শহরের পিছু ছাড়ছে না। শহরের মেয়রসহ দমকলমন্ত্রী পরিবর্তন হতে গেল থামল না আগুন লাগা। তাছাড়া শীতের রাতে এমন অগ্নিকান্ড অনেক সময়েই ঘটে। তেমনই ভাবেই হয়তো এই আগুন লেগে গিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে পুলিশ সূত্রে।

--
----
--