ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: কৈখালিতে বিধ্বংসী আগুন৷ আগুনে পুড়ে মৃত্যু হয়েছে এক বৃদ্ধার৷ আহত আরও এক৷ পুড়ে ছাই ছয়টি ঝুপড়ি৷ উঠেছে অন্তর্ঘাতের অভিযোগ৷ ঘটনাস্থলে আসেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু৷ শীতের রাতে গৃহহীন পরিবারদের জন্য থাকা খাওয়ার ব্যবস্থার করে দেওয়া হবে বলে তিনি আশ্বাস দেন৷

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিট নাগাদ কৈখালির মন্ডলগাথি টাটা গেটের কাছে একটি ঝুপড়িতে আগুন লাগে৷ কিছুক্ষণের মধ্যেই আগুন বিধ্বংসী আকার ধারন করে৷ আশেপাশের ঝুপড়িতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে৷ একটি জ্বলন্ত ঘরের মধ্যে আটকে পরেন এক বৃদ্ধা৷ সে প্যারালাইসিস রোগী হওয়ায় আগুন লাগার পর ঘর থেকে বের হতে পারেনি৷

নির্মল মন্ডল(৬৫) নামে ওই বৃদ্ধা ঘরের মধ্যেই জীবন্ত পুড়ে মারা যান৷ আহত হন আরও একজন৷ তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়৷ এছাড়া পুড়ে ছাই হয়ে যায় ছয়টি ঝুপড়ি৷ ঘটনাস্থলে আসে দমকলের তিনটি ইঞ্জিন৷ খবর পেয়ে ছুটে আসেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু ও ডিজি ফায়ার জগমোহন৷ দমকল মন্ত্রী জানান, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারদের থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে৷ পরে ঘরের ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে৷

ক্ষতিগ্রস্তদের অভিযোগ, ঝুপড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ স্থানীয় এক প্রোমোটার দীর্ঘদিন ধরে ঝুপড়িবাসীদের সরে যেতে বলেছিলেন৷ এমনকী সে হুমকিও দিয়েছিল যে নিজেদের ইচ্ছায় না চলে গেলে ঝুপড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হবে৷ তারপরই এই ঘটনা৷

বিষয়টি পুলিশকেও জানান হয়েছে৷ পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে বাগুইআটি থানার পুলিশ৷ যদিও আগুন লাগার বিষয় দমকলের প্রাথমিক অনুমান, গ্যাস সিলিন্ডার ফেটেই আগুন লেগেছে৷ এই বিষয় দমকলও তদন্তে নেমেছে৷

--
----
--