‘ভারতের সম্প্রীতির স্বাধীনতার দায়িত্ব নিতে হবে দিদিকে’

স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: ২১ জুলাইয়ের প্রস্তুতি সভায় হাজির হয়ে বিজেপি ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করলেন ফিরহাদ হাকিম৷ রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী জানালেন, দেশজুড়ে বিজেপির ‘অপশাসন’ শেষ করতে দায়িত্ব নিতে হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই৷

বুধবার বীরভূমে হাজির হয়েছিলেন ফিরহাদ হাকিম৷ সেখানকার বোলপুরে দলের কার্যালয়ে বসে তিনি বললেন, ‘‘বিজেপির আমলে গোটা দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে৷ বিভাজন বাড়ছে৷ স্বাধীনতার আগে এভাবেই আরএসএস, মুসলিম লিগ বিভাজন তৈরি করেছিল৷’’

আরও পড়ুন: হাওড়া থেকে উদ্ধার লক্ষাধিক টাকার গাঁজা

- Advertisement -

এই পরিস্থিতিতে ভারতবাসীকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির স্বাধীনতা দিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই এগিয়ে আসতে হবে৷ অন্তত এমনটাই মনে করেন পুরমন্ত্রী৷ তাই তাঁর কথায়, এবারের ২১ জুলাই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ৷ কারণ, ওই সভা থেকেই দেশবাসীর জন্য বার্তা দেবেন তৃণমূলনেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

প্রসঙ্গত, সোমবার মেদিনীপুরে বিজেপির কৃষক কল্যাণ সমাবেশের কথাও উঠে এসেছে ফিরহাদ হাকিমের মুখে৷ ওই সভায় যা ভিড় হয়েছিল, তার থেকে ২০ গুণ বেশি লোক হবে বলেই দাবি করেছেন৷ কেন ভিড়ের নিরিখে বিজেপিকে তৃণমূল ২০ গোল দেবে, তার ব্যাখ্যাও এদিন বীরভূমে তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের বসে দিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম৷

আরও পড়ুন: মুকেশের ‘কীর্তি’তে ফের উত্তেজনা মেমারি কলেজে

তিনি বলেছেন, ‘‘মোদীর সভায় লোক আনা হয়েছিল৷ আর কলকাতায় ২১ জুলাইয়ের সভায় মানুষ আবেগতাড়িত হয়ে আসেন৷’’ বাংলার মানুষের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সব করেছেন৷ তাই মানুষ এবার আরও বেশি করে ভিড় জমাবেন বলেই আশা করেছেন তিনি৷

Advertisement ---
---
-----