‘বিজেপি নতুন বোতলে পুরনো মদ’

ফাইল চিত্র

স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: শহিদ দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে একসঙ্গে বিজেপি-সিপিএমের সমালোচনা করলেন ফিরহাদ হাকিম৷ সিপিএমের কর্মী-সমর্থকরা এখন বাংলায় বিজেপির শক্তি বাড়াচ্ছে বলেও মনে করেন তিনি৷

তাঁর রাজ্যর পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী মতে, বিজেপি আসলে নতুন বোতলে পুরনো মদ৷ বিজেপির বোতলে সিপিএম ঢুকে পড়েছে৷’’

আরও পড়ুন: COTPA লাগু করে তামাক বর্জিত শহর গড়তে কড়া পুলিশ

- Advertisement -

শুক্রবার ছিল ২৭ জুলাই৷ ২০০০ সালের এই দিনটি বীরভূমের নানুর থানা এলাকার সূচপুরে গণহত্যা সংগঠিত হয়েছিল৷ রাতের অন্ধকারে পিটিয়ে মারা হয়েছিল ১১ জন খেতমজুরকে৷ তাঁরা প্রত্যেকেই ছিলেন তৃণমূলের কর্মী-সমর্থক৷

সেই ঘটনার স্মরণে প্রতিবছর ২৭ জুলাই শহিদ দিবস পালন করে তৃণমূল কংগ্রেস৷ শুক্রবার ওই শহিদ দিবস অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন ফিরহাদ হাকিম৷ সেখানেই তিনি বিজেপি ও সিপিএমকে এক হাত নেন৷

আরও পড়ুন: ত্রিলোচন মাহাত খুনের তদন্ত ৮ সপ্তাহের মধ্যে শেষ করার নির্দেশ

তিনি বলেন, ‘‘এখন সিপিএম করলে লোকে গায়ে থুতু দেবে৷ তাই এখন কোনও মানুষ সিপিএম করতে চায় না ৷ এখন আবার নতুন একটা দল এসেছে৷ বিজেপি নামক দল৷ যেমন নতুন বোতলে পুরনো মদ। বিজেপির বোতলে যেন সিপিএম ঢুকে পড়েছে৷’’

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের ব্যাখ্যা, সূচপুর গণহত্যায় মূল অভিযুক্ত সিপিএম৷ সিপিএমের হার্মাদরাই এই ঘটনা ঘটিয়েছিল বলে অভিযোগ ওঠে৷ সিপিএমের অনেকে ধরাও পড়ে৷ এই ঘটনায় ৪৪ জন এখন যাবজ্জীবন কারাবাসে রয়েছে৷ কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বাংলায় অপ্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে সিপিএম৷ এখন রাজনীতির ময়দানে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান প্রতিপক্ষ বিজেপি৷ তাই এক সুতোয় সিপিএম-বিজেপিকে গেঁথে ফিরহাদ হাকিম সমালোচনা করলেন বলেই রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মত৷

আরও পড়ুন: সামনে এল রণ-দীপির বিয়ের ভেনু

নানুরের বাসাপাড়ায় এদিনের অনুষ্ঠানে ফিরহাদ হাকিম ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় ও চন্দ্রনাথ সিনহা, তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল৷

অনুব্রতবাবু আবার স্বভাবসিদ্ধ ঢঙে বিজেপির সমালোচনা করেছেন৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চণ্ডাল বলে কটাক্ষ করেছেন৷ মুখ খুলেছেন বিভিন্ন রাজ্যে ঘটনা গণপিটুনির ঘটনা নিয়েও৷ তাঁর কথায়, ‘‘যারা বাড়ির জন্য গরু কিনে আনছে, আর তুমি তাঁদের ধরে ধরে পেটাচ্ছো।’’

আরও পড়ুন: ভূগোল অনার্সের দর উঠল এক লক্ষ টাকা!

Advertisement ---
---
-----