অরুণাভ রাহারায়, কলকাতা: ২০১৮ সালের সাহিত্য আকাদেমি পুরস্কার পাচ্ছেন সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়। আনন্দ পাবলিশার্স থেকে প্রকাশিত ‘শ্রীকৃষ্ণের শেষ কটা দিন’ বইয়ের জন্য তিনি এই পুরস্কার পাচ্ছেন। শ্রীকৃষ্ণের জীবনের শেষ কয়েকটা দিনের ঘটনা নিয়ে এই বই লেখা হয়েছিল।

ইংরেজি, হিন্দি, মণিপুরি, পাঞ্জাবী সহ ভারতের ২৪ টি ভাষার লেখকদের সঙ্গে এবারের তালিকায় নাম রয়েছে তাঁর। বুধবার দিল্লিতে দুপুর ৩ টা বেজে ৩০ মিনিটে সাংবাদিক সম্মেলনে সাহিত্য আকাদেমি পুরস্কারের তালিকা ঘোষণা হওয়ার পরে স্বাভাবিক ভাবেই খুশির হাওয়া বাংলার শিল্প-সাহিত্য মহলে। লেখক নিজেও এই ঐতিহ্যশালী পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়ে আপ্লুত।

সাহিত্য আকাদেমির বাংলা উপদেশক পর্ষদের আহ্বায়ক এবং কবি সুবোধ সরকার kolkata24x7.com-কে জানিয়েছেন “আজ থেকে পঁচিশ বছর আগে সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়ের সাহিত্য আকাদেমি পুরস্কার পাওয়া উচিৎ ছিল। সে যাক গে! আজ আমার খুব আনন্দ হচ্ছে তিনি পেলেন। যিনি লিখতে এসেই বাঙালি পাঠকের হৃদয় জয় করে নিয়েছিলেন। তাঁর লেখার সবচেয়ে বড় সম্পদ কালো হিউমার। যাকে তিনি তাঁর প্রতিভার জোরে সাদায় পরিণত করেছেন। যা বাংলা সাহিত্যে বিরল।”

এর আগে বাংলা থেকে শক্তি চট্টোপাধ্যায়, সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়, শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়, সমরেশ মজুমদার, সুবোধ সরকার সরকার সহ আরও অনেকেই এ পুরস্কার পেয়েছেন। এই তালিকায় সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়ের নাম আলাদা মাত্রা যোগ করেছে। সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম ১৯৩৬ সালে। স্কটিশ চার্চ কলেজ ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি পাড়াশোনা করেছেন। তাঁর লেখা উপন্যাস ‘লোটাকম্বল’ পাঠক মহলে বিপুল জনপ্রিয়তা পেয়েছিল।

----
--