পশুখাদ্য মামলা: ঝাড়খন্ড আদালতে জামিনের আবেদন লালুর

রাঁচি: উচ্চ আদালতে জামিনের আবেদন করলেন পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে সাড়ে তিন বছরের সাজাপ্রাপ্ত বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালু প্রসাদ যাদব৷ শুক্রবার ঝাড়খন্ড হাইকোর্টে জামিনের আবেদন জানান আরজেডি প্রধান৷
লালুর আইনজীবী চিত্তরঞ্জন সিনহা সাংবাদিকদের জানান, আগামী ১৯ জানুয়ারি আদালতে এই জামিন মামলার শুনানি হবে৷

গত ৬ জানুয়ারি রাঁচির বিশেষ সিবিআই আদালতের বিচারপতি শিবপাল সিং পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির দেওঘর ট্রেজারির মামলায় বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন৷ প্রসঙ্গত ১৯৯১ সাল থেকে ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী থাকার সময় ক্ষমতার অপব্যবহার করে পশুখাদ্যের নামে দেওঘর ট্রেজারি থেকে ৮৯.২৭ লক্ষ টাকা তোলা হয়৷ সেই মামলায় সাড়ে তিন বছরের জেল ও জরিমানা হয়৷ তিন বছর বা তার কম সাজা পেলে নিম্ন আদালতেই জামিনের আবেদনের সুযোগ থাকত৷ কিন্তু তা না হওয়ায় লালুকে উচ্চ আদালতে জামিনের আবেদন করতে হল৷

অখণ্ড বিহারের মুখ্যমন্ত্রী থাকার সময় এই পশুখাদ্যের জন্য ৯০০ কোটি টাকার আর্থিক তছরুপ হয় বলে অভিযোগ৷ সিবিআই এই মামলা হাতে নেওয়ার পর লালুর বিরুদ্ধে পাঁচটি মামলা দায়ের করে৷ এর আগে চাইবাসা ট্রেজারির ৩৭.৭০ কোটি টাকার দুর্নীতির মামলায় ২০১৩ সালে ৩০ সেপ্টেম্বর লালুকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়৷ এই মামলাতেই লালুর পাঁচ বছরের জেল হয়৷ এর জেরে সাংসদ পদ হারাতে হয় তাকে৷ এমনকি নির্বাচনে দাঁড়ানোর সুযোগও হারান তিনি৷ এই মামলাতে পরবর্তীকালে জামিনও পেয়ে যান তিনি৷ কিন্তু ফের দেওঘর ট্রেজারি মামলায় হাজতে যেতে হয় তাকে৷ এখনও তার বিরুদ্ধে আরও তিনটি মামলা ঝুলছে৷ ফলে এই মামলাতে জামিন পেলেও তা হবে ক্ষণিকের স্বস্তি৷

Advertisement ---
---
-----