যুবতীকে গণধর্ষণের অভিযোগ, শহরে নিরাপদ ফুটপাথবাসী?

সোয়েতা ভট্টাচার্য, কলকাতা: ফের ফুটপাথবাসীদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিল নর্থ পোর্ট থানার এলাকার ঘটনা।শুক্রবার নর্থ পোর্ট এলাকায় এক যুবতী কে অচৈতন্য অবস্থায় পরে থাকতে দেখা যায়। অভিযোগ কুড়ি বছরের ওই যুবতীকে গনধর্ষন করা হয়েছে। হাসপাতালে তার চিকিৎসা শুরু করেছেন চিকিৎসকেরা। জানা গিয়েছে, ওই যুবতীর অবস্থা এখনও আশঙ্কাজনক। তার যৌনাঙ্গে গভীর আঘাত রয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, এই এলাকার ফুটপাথে থাকত ওই যুবতী। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে এই ঘটনার সঙ্গে তিন জন যুবক জড়িত। অভিযুক্তদের খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ। এলাকাবাসীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে বেশ কয়েকটি সুত্র পেয়েছে তদন্তকারিরা। তদন্তে নেমে অভিযুক্ত দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়। জানা যাচ্ছে অধরা আরেক যুবকের খোঁজ চালাচ্ছেন পুলিসকর্তারা।

ধৃতদের দফায় দফায় জেরা করছেন তদন্তকারীরা। তবে এই ঘটনার জেরে আতঙ্কে শহরের ফুটপাথবাসীরা। তাদের মধ্যে থেকে এক ফুটপাথবাসী বলেন, ‘‘আমাদের মাথার উপর ছাদ নেই। অসহায় অবস্থায় জীবনযাপন করি আমরা। বাধ্য হয়ে পরিবারকে নিয়ে এই ভাবেই দিন কাটাতে হয়। এই ঘটনাগুলো জানতে পেরে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’’

- Advertisement -

অগস্ট মাসে শ্যামবাজার এলাকায় ফুটপাথবাসী এক শিশুকন্যার দেহ একটি ম্যানহোল থেকে উদ্ধার হয়। ময়নাতদন্তে জানা যায় তাকেও যৌন নিগ্রহ করে খুন করা হয়েছে। ঘটনায় মূল অভিযুক্ত ধরে পড়েছে। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই নর্থ পোর্ট এলাকার এই ঘটনা শহরে ফুটপাথবাসিদের উদ্বেগ আরও বাড়িয়ে তুললো। শ্যামবাজার এলাকার এক ফুটপাথবাসী বলেন,‘‘আমরা প্রশাসনের কাছে আবেদন জানাতে চাই৷ আমাদের সুরক্ষা ব্যবস্থার উপর জোড় দেওয়া হোক। দু’বেলা ভাত জোগাতে সারাদিন হাড় হিম করা খাটুনি করতে হয় আমাদের। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগে এবার যদি আমরা রাতে চোখের দুই পাতা এক না করতে পারি তাহলে আমরা বেঁচে থাকব কী ভাবে?’’

Advertisement
---