পাকিস্তানের ইতিহাসে প্রথম হিন্দু নেতার জয় ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে

ইসলামাবাদ: পাকিস্তানে সংখ্যালঘু হিন্দুদের একঘরে হওয়ার ঘটনাই বারবার প্রকাশ্যে এসেছে। তবে এবার নির্বাচনে নজির গড়ে জয়ী হলেন হিন্দু নেতা মহেশ কুমার মালানি। পাকিস্তান পিপলস পার্টির হয়ে ভোটে দাঁড়িয়েছিলেন মালানি।

সময় বদলেছে। হিন্দু নেতার জয় পাকিস্তানে সেরকমই ইঙ্গিত দিচ্ছে। সিন্ধ প্রদেশের থারপারাকার থেকে ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির সিটে জয়ী হয়েছেন ওই নেতা। অর্থাৎ এবার ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে প্রতিনিধিত্ব করবেন এই হিন্দু নেতা। পাকিস্তানের ইতিহাসে এতাই প্রথম।

৫৫ বছরের মালানি NA-222 কেন্দ্রে আরব জাকাউল্লাকে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন। তাঁর ঝুলিতে গিয়েছে ৩৭,২৪৫টি ভোট। জাকাউল্লার থেকে প্রায় ১০,০০০ বেশি ভোটে জয়ী হয়েছেন তিনি। রাজস্থানি ব্রাহ্মণ পরিবারের ছেলে মালানি।

- Advertisement -

সংরক্ষিত আসনে পার্লামেন্টে তিনি প্রতিনিধিত্ব করেছেন ২০০৩ থেকে ২০০৮ পর্যন্ত।

অন্যদিকে, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে এখনো ওয়েটিং লিস্টেই রয়েছেন ইমরান খান৷ জাতীয় নির্বাচনের ২৭০টি আসনের মধ্যে ১১৪টি আসনে জয়ী হলেও প্রয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা থেকে দূরেই কিং খানের দল পিটিআই৷ ফলে সরকার গড়ার জন্য প্রয়োজনীয় ১৩৭টি আসনের জন্য নির্দলদের সাহায্য নিতেই হবে৷ যে ২৩টি আসনের ঘাটতি রয়েছে সেটা পূরণে আদাজল খেয়ে নেমে পড়েছেন ইমারানের ক্রাইসিস ম্যানেজাররা৷

নির্বাচনের পর এমন অভূতপূর্ব ঘটনা সাম্প্রতিক সময়ে দেখা যায়নি৷ এদিকে বিরোধীদের মধ্যে প্রধান তিন দল পিএমএল(এন), পিপিপি এবং এমকিউএম নেতৃত্ব যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়ে দিলেন- নির্বাচনে চরম রিগিং হয়েছে৷ এই নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় ভোট নেওয়া হোক৷ বিরোধীদের সম্মিলিত শক্তির এমন আওয়াজ দেখেনি পাকিস্তানিরা৷

Advertisement ---
---
-----