উপহার পাঠিয়ে তৃণমূল সদস্যের স্বামীকে প্রাণনাশের হুমকি প্রাক্তন বিধায়কের

মালদহ: ফল মিষ্টি পাঠিয়ে জেলা পরিষদের তৃণমূল সদস্যের স্বামীকে প্রাণনাশের হুমকি। অভিযোগের তীর এলাকার প্রাক্তন বিধায়ক তথা ব্লক তৃণমূল সভাপতি ও তার অনুগামীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি মালদহর হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকার৷ ঘটনায় চরম অস্বস্তিতে পড়েছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। ঘটনার তদন্তে নেমেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ।

এলাকার জেলা পরিষদ সদস্য মমতাজা বেগমের স্বামী আমিনুল হকের অভিযোগ, তিনি মালদহ পাকুআহাটে শুভেন্দু অধিকারীর কর্মী সভায় যোগ দিতে গিয়েছিলেন৷ সেই সময় হরিশচন্দ্রপুরের প্রাক্তন বিধায়ক তথা ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি তাজমুল হোসেনের তার বাড়িতে আসে৷ তার বাড়িতে একটি প্যাকেট দিয়ে যায়৷ প্যাকেটের মধ্যে বেশ কিছু ফল, মিষ্টি ও একটা হরলিক্সের বোতল ছিল। পাশাপাশি প্যাকেটের মধ্যে একটি চিঠিও ছিল৷ সেই চিঠিতে লেখা রয়েছে এই খাওয়ারগুলি দিয়ে গেলাম, শেষবারের মতো খেয়ে নাও৷ কারণ পরের দিন আর কোনও খাবার খেতে পারবে না৷ তোমাকে খুন করা হবে।

- Advertisement -

তাঁর পরিষ্কার অভিযোগ এলাকার ব্লক সভাপতি নাজমুল হোসেন ও তার দলবল তাকে এইভাবে প্রাণনাশের চেষ্টা করছে। এই ঘটনার পর থেকেই কার্যত তিনি ও তাঁর স্ত্রী গৃহবন্দি হয়েছেন। হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় অভিযোগ জানালেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ। দীর্ঘদিন ধরে ব্লক তৃণমূল সভাপতি তাজমুল হোসেন ও তার অনুগামীরা এলাকায় পঞ্চায়েত সংক্রান্ত বিভিন্ন দুর্নীতি চালিয়ে যাচ্ছে তিনি তার প্রতিবাদ করেছিলেন। শুভেন্দু অধিকারীর কাছে তিনি এই নিয়ে অভিযোগ জানান। আর সেই কারণেই তাকে এইভাবে হুমকির শিকার হতে হয়েছে।

যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তাজমুল হোসেন। তিনি বলেন, এই ঘটনার সঙ্গে তিনি কোনোভাবেই যুক্ত নন৷ কারণ সেদিন শুভেন্দু অধিকারী সভায় তিনি গিয়েছিলেন। এটা মিথ্যে অভিযোগ। তৃণমূলের জেলার কার্যকরী সভাপতি দুলাল সরকার জানান, এই ধরনের ঘটনা দল বরদাস্ত করবে না৷ দলের নিচুতলার কেউ যদি এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে থাকে আইনিভাবে যথাযোগ্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷