‘ভারতীয় সেনারা PoK-তে ঢুকলে আর ফিরতে পারবে না’, হুমকি মুশারফের

ইসলামাবাদ: ভারতের সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াতের বক্তব্যে পাক রাজনৈতিক মহল উত্তপ্ত, চলছে পাল্টা জবাব দেওয়ার পালা, আর তারই মাঝে এবার পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট জেনারেল পারভেজ মুশারফ মঙ্গলবার ভারতকে হুঁশিয়ারি দেন৷ ভারত পাক অধিকৃত কাশ্মীরে যদি সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের প্রচেষ্টা করে, তার বিরুদ্ধেই মুশারফের এই বক্তব্য৷

মুশারফ আরও জানান, ‘অতীতে পাকিস্তান পরাজিত হতে পারে এবং আত্মসমর্পণ করতে পারে, কিন্তু তার আর পুনরাবৃত্তি হবে না৷ পাকিস্তানের সেনাবাহিনী যে সম্পূর্ণ বদলে গিয়েছে সে কথাও মনে করিয়ে দেন তিনি৷’

সেই সঙ্গে এও স্পষ্ট করে দেন, ‘যদি ভারত মনে করে থাকে আরও একটা সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করবে তাহলে পাকিস্তান তার যথাযোগ্য উত্তর দেবে৷ ভারতীয় সেনা যদি পিওকে-তে প্রবেশ করে তাহলে তারা আর ফিরে যেতে পারবে না৷ ‘

- Advertisement -

পড়ুন: আবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক? সেনাপ্রধান বললেন ‘সারপ্রাইজই থাকুক’

প্রসঙ্গত, দিনকয়েক আগেই এক বিএসএফ জওয়ানকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে পাক সেনা। তবে এটাই প্রথমবার নয়। এর আগেও এমন বর্বরোচিত আচরণ করেছে পাকিস্তান। গত ২৩ সেপ্টেম্বর সেকথাই মনে করিয়ে দেন সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত।

বিএসএফ জওয়ান নরেন্দ্র কুমারকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। গলা কেটে খুন করা হয়েছে তাঁকে। এই অবস্থায় কী ফের একবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালানোর কথা ভাবছে ভারতীয় সেনা? এই প্রশ্নের উত্তরে বিপিন রাওয়াত বলেন, ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হল সারপ্রাইজ করার একটা অস্ত্র। তাই সেটা সারপ্রাইজ থাকাই ভাল।’

এর আগে ২২ সেপ্টেম্বর বিপিন রাওয়াত এই ঘটনার প্রতিশোধ নেওয়ার কথা বলেন। তবে নৃশংসতার সঙ্গে এই ব্যবহার ফিরিয়ে দেওয়া হবে না বলেও উল্লেখ করেন তিনি। বলেন, ‘এবার আমাদের জবাব দেওয়ার সময়, তবে অবশ্যই একই রকম বর্বরোচিত আচরণ না করে। তবে আমার মনে হয়, শত্রুপক্ষেরও একই রকম যন্ত্রণা পাওয়া দরকার।’

Advertisement ---
---
-----