জার্মানির বিশ্বকাপ-বিপর্যয়ে নড়বড়ে লো-য়ের চেয়ার

কাজান: ১৯৩৮ সালের পর প্রথমবার গ্রুপ পর্যায় থেকে বিদায় নিল জার্মানি৷ দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে ০-২ হেরে মাথা নিচু করে মাঠ ছাড়লেন জোয়াকিম লো-এর ছেলেরা৷ যার ফলে ছেদ পড়তে পারে জোয়াকিম লো এবং জার্মান ফুটবলের ১২ বছরের সম্পর্কে৷ চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের এরকম অপ্রত্যাশিতভাবে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ায় তার কোচের চেয়ার নড়বড়ে হওয়ার আশঙ্কা করছেন লো৷

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হিসাবে খেলতে নেমে এই প্রথমবার কোনও দল গ্রুপ লিগের দু’টি ম্যাচে হার মানল৷ ‘এফ’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে ০-২ হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে জার্মানি৷ তবে তার আগেই মেক্সিকোর কাছে ১-০ হার দিয়েই বিশ্বকাপ সফর শুরু করেছিল জোয়াকিম লো ব্রিগেড৷

জার্মান ফুটবলারদের এই খারাপ পারফরম্যান্সের প্রভাব যে তার কোচিং কেরিয়ারে পড়তে চলেছে তা আঁচ করে লো জানান, ‘আমার কি সরে যাওয়া উচিৎ? এই উত্তরটা এখনই দেওয়া সম্ভব নয়৷ কিন্তু আমার হতাশা এখনও টাটকা রয়েছে৷ এরকম হবে এটা দুঃস্বপ্নেও ভাবিনি৷ সবকিছু বিচার করার জন্য আমার কিছুটা সময় চাই৷ আমরা কাল কথা বলব৷’

- Advertisement -

যোগ্য দল হিসেবেই সুইডেন এবং মেক্সিকো শেষ ষোলোয় গিয়েছে এটা মেনে নিয়ে জো বলেন, ‘এই মুহূর্তে এটা বলা মুশকিল আমরা কেন হারলাম৷ হারের কষ্টটাও খুব বড়৷ আমরা আরও একবার বিশ্বকাপ জেতার যোগ্য ছিলাম না৷ এমনকি শেষ ষোলোতেও পৌঁছানো সম্ভব হয়নি আমাদের৷ শেষ ম্যাচে চিরাচরিত ফিনিশ যেটা জার্মান দলে থাকে তার ধার কাছেও ছিলনা ছেলেরা৷’

Advertisement ---
-----