কলকাতা: নজরে চতুর্থ দফার নির্বাচন৷ সোমবারের ৪৯টি আসনের ভোটে৷ অবাধ ও ভয়মুক্ত ভোট করাতে বিশেষ নজর নিতে চলেছে কমিশম৷ নিরাপত্তা ব্যবস্থা আঁটসাঁটও করতে রাজ্যের ৪৯ কেন্দ্রে মোতায়েন হচ্ছে ৬৭২ কোম্পানি বাহিনী৷ ভোটকেন্দ্রের ১০০ মিটারের গণ্ডির মধ্যেও থাকছে কড়া পাহাড়া৷ ইতিমধ্যেই রাজ্যের ৪৯টি কেন্দ্রে বাহিনী পৌঁছে গিয়েছে৷ সল্টলেকের ওপর বাড়তি নজর রাখছে কমিশন৷ভোট শুরুর ৪৮ ঘণ্টা আগেই জারি করে দেওয়া হয়েছে ১৪৪ ধারা। বুথের ১০০ মিটারের মধ্যে ১৪৪ ধারা জারি থাকছে। পাঁচজনের বেশি জমায়েত হতে দেওয়া হয়ে না। বহিরাগতদের আটকাতে এই পন্থাই নিয়েছে কমিশন।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, হাওড়া জেলার ভোটের জন্য ২২৭ কোম্পানি বাহিনী পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে৷হাওড়া শহরের ৭৫ কোম্পানি ও হাওড়া গ্রামীণে রাখা হচ্ছে ১৫২ কোম্পানি আধা সেনা।  উত্তর ২৪ পরগনা জেলার জন্য রাখা হচ্ছে ৬৭২ কোম্পানি বাহিনী৷তিনটি ভাগে ভাগ করা হচ্ছে এই বাহিনীকে৷ ব্যারাকপুর ও বিধাননগর কমিশনারেটের যথাক্রমে বাহিনী রাখা হবে ১৩৭ ও ৫১ কোম্পানি৷ জেলা পুলিশ সুপারের অধীনে রাখা হবে ২৫৭ কোম্পানির আধাসেনা৷মোট ৪৯ কেন্দ্রে প্রায় ২২ হাজার রাজ্য পুলিশ মোতায়েন করা হচ্ছে৷ অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভোট করাতে জারি হয়েছে একাধিক বিধিনিষেধ৷ ভোট-গ্রহণ কেন্দ্রের ভেতর আঙুলের কালি মুছে কেউ যাতে জাল ভোট দিতে না পারেন, তার জন্য পোলিং ও প্রিসাইডিং অফিসারকে সদা সতর্ক থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷

----
--