স্বাধীনতা দিবসেই গোয়ায় ‘মদ’ পরাধীন

গোয়া: প্রকাশ্যে আর মদ নয়৷ গোয়ায় প্রকাশ্যে মদ্যপানে জারি হল নিষেধাজ্ঞা৷ ১৫ অগাস্ট থেকে এই আইন আনুষ্ঠানিক ভাবে জারি হবে৷ গোয়ার পর্যটনকে চাঙ্গা করতেই এই আইন বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিকর৷

আইন আনুসারে, গোয়ার সমুদ্র সৈকতে বা রাস্তায় প্রকাশ্যে মদ্যপান বেআইনি৷ গোয়ায় মদ খুব সহজলভ্য হওয়ায় বেশিরভাগ সময় আইনের তোয়াক্কা না করেই উল্লাসে মত্ত থাকেন পর্যটকরা৷ যা রুখতেই এই আইন জারি, বলে জানাচ্ছে গোয়া প্রশাসন৷ মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিকর বলেন, ‘সামাজিক পর্যটকরাই গোয়ায় আসুন৷ যারা মদ্যপান প্রকাশ্যে করতে পারবেন বলে গোয়ায় আসতে চাইছেন, তাদের আমরা স্বাগত জানাবো না৷ গোয়ার সংস্কৃতি পর্যটন শিল্পের অঙ্গ যা কয়েকজনের জন্য নষ্ট হতে পারে না’৷

১৫ অগাস্টের পর গোয়ায় প্রকাশ্যে কেউ মদ্যপান করলে তাঁকে ২৫০০ টাকা জরিমানা দিতে হবে৷ আইন লঙ্ঘন করলে জেলও হতে পারে৷ ভারতের অন্যতম রঙিন পর্যটন কেন্দ্র গোয়া৷ এখানকার পর্যটন স্থল,সংস্কৃতি, লোকনৃত্য, খাবার, সমুদ্র সব মিলে গোয়া বিদেশি পর্যটদেরও আকর্ষণ টানে৷ বিদেশি পর্যটকদের ভিড় গোয়ার পর্যটন শিল্পকে অনেকটাই চাঙ্গা করে৷ সবকিছু মাথায় রেখে গোয়াকে ‘ভালো’ পর্যটকদের জায়গা করতে উদ্যত সরকার৷

- Advertisement -

যার প্রথম পদক্ষেপ প্রকাশ্যে মদ্যপানে নিষেধাজ্ঞা৷ গোয়ার উপকূলবর্তী গ্রামে যেখানে পর্যটকদের সংখ্যা বেশি, সেখানে মদের বোতল, ক্যান পরিবেশ নষ্ট করছে বলে অভিযোগ৷ যত্রতত্র স্তূপাকারে বোতল জমছে৷ সেই কারণকে সামনে রেখেও জারি হচ্ছে এই নিষেধাজ্ঞা৷ ১৮ জুলাই বাদল অধিবেশনেই গোয়ায় মদ্যপানের উপর নিষেধাজ্ঞা বিষয়টি উঠবে৷

Advertisement
---