আপনার অজান্তে ‘সেভ’ হয়ে যাওয়া নম্বরের পিছনে আসলে কে জানেন?

নয়াদিল্লি: আচমকা ফোনের কনট্যাক্ট লিস্টে জুড়ে গিয়েছে একটা নম্বর। আর তা নিয়ে শুক্রবার থেকেই তোলপাড় গোটা দেশ। UIDAI নামে আধার সংক্রান্ত একটি হেল্পলাইন নম্বর যোগ হয়ে গিয়েছে ফোনবুকে। সবার অজান্তে কীভাবে এই নম্বর সেভ হল, তা নিয়ে কৌতূহল তৈরি হয় সাধারণ মানুষের মধ্যে। আশঙ্কাও প্রকাশ করেন অনেকে। অবশেষে সেই রহস্যের সমাধান সম্ভব হল।

শুক্রবারই আধার কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দেয় যে, তারা কোনও টেলিকম অপারেটর বা কোনও ফোন প্রস্তুতকারী সংস্থাকে এরকম কোনও নির্দেশ দেয়নি। এরপর এই ভুলের দায় স্বীকার করে নিল গুগল। এই সংস্থাই অ্যান্দ্রয়েড ফোনগুলিতে ওই নম্বর সেভ করে দিয়েছে বলে জানিয়েছে। ভারতের অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলির জন্য সেট আপ করা উইজার্ডে ওই নম্বর সেভ করে দেওয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছে গুগল। সংস্থার ইন্টারনাল রিভিউ-তে এই বিষয়টি সামনে এসেছে।

গুগলের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, কনট্যাক্ট লিস্টে ওই ফোন নম্বর থাকায় কোনও নতুন ডিভাইল নিলেও নম্বরটি ট্রান্সফার হয়ে যাচ্ছে। তবে নম্বরটি ম্যানুয়ালি ফোন থেকে ডিলিট করা সম্ভব বলে জানিয়েছে সংস্থা। অর্থাৎ, কেউ চাইলে নিজের ফোন থেকে নম্বরটি ডিলিট করতে পারে। আগামদিনে উইজার্ডে যাতে নম্বরটি না থাকে, সেদিকে খেয়াল রাখা হবে বলেও জানিয়েছেন ওই মুখপাত্র। কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই সমস্যার সমাধান হবে বলে জানানো হয়েছে।

UIDAI জানিয়েছে কনট্যাক্ট লিস্টে থাকা 1800-300-1947 নম্বরটি পুরনো এবং অবৈধ। নতুন হেল্পলাইন নম্বরটি হল 1947. গত দু’বছর ধরে ওই নতুন নম্বরটিই কার্যকর।

ফরাসি সিকিউরিটি এক্সপার্ট ইলিয়ট অলডারসন বিষয়টি সামনে আনেন। তিনি ট্যুইটারে প্রশ্ন তোলেন, কীভাবে ওই নম্বর মোবাইলে সেভ হয়ে গেল। এমনকী আধার কার্ড না থাকলেও এই নম্বর চলে আসছে। একাধিক নেটওয়ার্কে ঘটেছে একই ঘটনা। সবার মোবাইলে mAadhaar ইনস্টল আছে, এমনটাই নয়। এব্যাপারে আধার কর্তপক্ষের কাছে ব্যাখ্যা চান তিনি। এরপরই বিষয়টা নিয়ে তোলপাড় হয়।

-------
----