৯ এপ্রিল পর্যন্ত জেল হেফাজতে রোজভ্যালি কর্তা

কলকাতা:  কড়া নিরাপত্তায় আজ মঙ্গলবার ফের কলকাতা নগর দায়রা আদালতে তোলা হয় রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুন্ডুকে। আদালতের নির্দেশ, আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত জেল হেফাজতে থাকতে হবে গৌতম কুন্ডুকে। এদিন কড়া নিরাপত্তার মধ্যে আদালতে তোলা হয় রোজভ্যালি কর্তা। আদালতের বাইরে আজও বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন আমানতকারীরারা। বিক্ষোভ দেখানো হয় ময়ূখ ভবনের সামনেও। অন্যদিকে, গৌতম কুন্ডুকে জেলের মধ্যেই জেরা করার অনুমতি পেল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

কোটি কোটি টাকা তছরুপের মামলায় আপাতত ইডি হেফাজতে রয়েছেন গৌতম কুন্ডু। গত বৃহস্পতিবারও আদালত চত্বরের বাইরে রোজভ্যালি সংস্থার কর্মী, এজেন্ট এবং আমানতকারীদের সীমাহীন তান্ডবে উত্তাল হয়ে ওঠে আদালত চত্বর। পরিস্থিতি এমন পর্যায় পৌঁছয় যায় যে, ব্যাংকশাল কোর্টের সমস্ত গেটই বন্ধ করে দিতে হয়। তা থেকেই শিক্ষা নিয়েই আজ বিক্ষোভকারীদের ঠেকাতে আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছিল পুলিশ।

নিরাপত্তার চাদরে মোড়া আদালত চত্বর
নিরাপত্তার চাদরে মোড়া আদালত চত্বর

ব্যাংকশাল কোর্টের চারটি গেটেই সকাল থেকে ছিল পর্যাপ্ত পুলিশ। এমনকি ব্যাংকশাল স্ট্রিট, হেয়ার স্ট্রিট, জিপিও সংলগ্ন এলাকা, স্ট্র্যান্ড রোডে ছিল কলকাতা পুলিশের রিজার্ভ ফোর্সের কর্মীরা। সাদা পোশাকের পুলিশও মোতায়েন ছিল আদালতের বিভিন্ন জায়গায়। রোজভ্যালি কর্তাকে আদালতে নিয়ে যাওয়া এবং ফেরার সময়ে কলকাতা পুলিশের সাহাজ্য নেওয়া হয়। গৌতম কুন্ডুর গাড়ির আগে এবং পিছনে ছিল এসকর্ট। অন্যদিকে, হেফাজতে থাকাকালীন রোজভ্যালি কর্তাকে জেরা করে যে সব তথ্য উঠে এসেছে, তা ইতিমধ্যে রেকর্ড করা হয়েছে। ওইসব নথি-সহ মামলার কেস ডায়েরি আজ পেশ করা হবে আদালতে।

Advertisement ---
---
-----