নয়াদিল্লি: পাকিস্তানের উপর এবার তীক্ষ্ন দৃষ্টি রাখতে চায় ভারত৷ সেই কারণে এবার গুজরাতে, পাকিস্তান সীমান্তের কাছাকাছি একটি এয়ারবেস পরিকল্পনা করছে ভারতীয় বায়ুসেনা৷ গুজরাতের বানাসকান্ত জেলার দেসায় তৈরি হবে এয়ারবেসটি৷

ভারতীয় বায়ুসেনা অনেকদিন থেকেই এই পরিকল্পনা করেছিল৷ কিন্তু এর অনুমোদন পেতে সময় লাগছিল৷ শেষ পর্যন্ত ক্যাবিনেট কমিটি অন সিকিউরিটি (CCS) বুধবার এর অনুমতি দেয়৷ এই ক্যাবিনেট কমিটি অন সিকিউরিটির প্রতিনিধিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ এই ফাইটার এয়ারবেসটি একবার তৈরি হয়ে গেলে বারমের ও ভূজ সহ পশ্চিমের সীমান্ত ভারতীয় বায়ুসেনার হাতের মুঠোয় চলে আসবে৷ ফলে পাকিস্তানকে নজরে রাখাও সম্ভব হবে৷

Advertisement

এর জন্য প্রায় ১ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে৷ এর ফলে ছোটো দিসা বিমানবন্দর সম্পূর্ণভাবে বায়ুসেনার ঘাঁটিতে পরিবর্তন হবে৷ জানিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক৷ সেই সঙ্গে এও জানিয়েছে এই বেস সম্পূর্ণ তৈরি করতে ৪ হাজার কোটি টাকারও বেশি খরচ হবে৷ এর জন্য ১ কিলোমিটার রানওয়ে তৈরি হবে৷ এছাড়া ফাইটার-পেন ও অন্যান্য অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ফেসিলিটিও থাকবে৷ এই এয়ারপোর্ট মূলত হেলিকপ্টার ল্যান্ডিং ও ভিভিআইপিদের জন্য ব্যবহৃত হবে৷ এয়ারবেস তৈরির জন্য প্রায় ২ দশক আগে ৪ হাজার একর জমির প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল৷ এবার প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের উদ্যোগে সেটি বাস্তবায়িত হতে চলেছে৷

বৃহস্পতিবার এয়ার চিফ মার্শাল বীরেন্দ্র সিং ধানওয়া বলেছিলেন চিনের সঙ্গে যুদ্ধ করার জন্য যথেষ্ট অস্ত্র রয়েছে ভারতের ভান্ডারে৷ তারপর আজ শুক্রবার প্রকাশ্যে এল নতুন এয়ারবেস তৈরির খবর৷ বোঝাই যাচ্ছে আঘাত চিন থেকেই আসুক, বা পাকিস্তান থেকে; ভারত আঁটঘাট বেঁধে ময়দানে নামবে৷

----
--