স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের চাকরিতে তুলে দেওয়া হল পাবলিক সার্ভিস কমিশন (পিএসসি)-এর মাধ্যমে নিয়োগ প্রক্রিয়া৷ সোমবার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় পাস হয়েছে একটি বিল৷ আর, তার জেরেই, এ রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরে নিয়োগের ক্ষেত্রে পিএসসি তুলে দেওয়ার প্রক্রিয়া-ই সম্পূর্ণ করা হল বলে অভিযোগ উঠছে৷

সোমবার পাস হওয়া ওই বিলের বিরোধিতা করে বামেদের অভিযোগ, রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরে পিএসসি-র মাধ্যমে নিয়োগ প্রক্রিয়া তুলে দেওয়ার মাধ্যমে সরকারি চাকরির ক্ষেত্রকে দলবাজি এবং দুর্নীতির আখড়ায় পরিণত করল পশ্চিমবঙ্গের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস৷ এমন অভিযোগ অবশ্য তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে অস্বীকার করা হয়েছে৷ সোমবার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় পাস হয়েছে ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট আয়ুর্বেদিক হেলথ সার্ভিস (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল-২০১৫৷ এই বিলের বিরোধিতা যাঁরা করেছেন, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন সিপিএমের বিধায়ক মনোরঞ্জন পাত্র, ফরওয়ার্ড ব্লকের বিধায়ক বিশ্বনাথ কারক এবং এসইউসিআই-এর বিধায়ক তরুণকান্তি নস্কর৷ এই বিলের মাধ্যমে আয়ুর্বেদ পদ্ধতির চিকিৎসা, শিক্ষা এবং প্রশাসনিক কাজকর্মের জন্য নিয়োগের ক্ষেত্রে তুলে দেওয়া হল পিএসসি-র প্রক্রিয়া৷ যে কারণে, ওই সব নিয়োগের প্রক্রিয়া এ বার সম্পন্ন হবে ওয়েস্ট বেঙ্গল হেলথ সার্ভিস রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের মাধ্যমে৷

Advertisement

পিএসসি-র মাধ্যমে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে লেগে যায় দীর্ঘ সময়৷ অথচ, এ রাজ্যে সরকারি চিকিৎসকদের খামতি পূরণের জন্য দ্রুত সম্পন্ন করতে হবে নিয়োগ প্রক্রিয়া৷ এমনই কারণে, ওয়েস্ট বেঙ্গল হেলথ সার্ভিস রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের কথা ঘোষণা করেছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ওই বোর্ড গঠনও হয়েছে৷ তবে, খোদ স্বাস্থ্য দফতরের-ই একাংশ ওই বোর্ডের সাফল্য নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছে৷ ওয়েস্ট বেঙ্গল হেলথ সার্ভিস রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের মাধ্যমে আয়ুর্বেদ শাখায় নিয়োগ সম্পন্ন করতে সোমবার ওই বিল পাস করানো হয়েছে৷ ওই বিলের বিরোধিতা করে এ দিন সিপিএমের বিধায়ক মনোরঞ্জন পাত্র বলেন, ‘‘রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরে পিএসসি-র মাধ্যমে নিয়োগ প্রক্রিয়া তুলে দেওয়ার প্রক্রিয়া-ই সম্পূর্ণ করল এই বিল৷ এ ভাবে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের নিয়োগের ক্ষেত্রকে দলবাজি এবং দুর্নীতির আখড়ায় পরিণত করল তৃণমূল কংগ্রেস৷’’

পাস হওয়া ওই বিল প্রসঙ্গে সোমবার বিধায়ক মনোরঞ্জন পাত্র বলেছেন, ‘‘ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট আয়ুর্বেদিক হেলথ সার্ভিস (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল-২০১৫-র মাধ্যমে আয়ুর্বেদ শাখায় চিকিৎসা, শিক্ষা এবং প্রশাসনিক কাজকর্মের জন্যে আর পিএসসি-র মাধ্যমে নিয়োগ করা হবে না৷ ওই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে ওয়েস্ট বেঙ্গল হেলথ সার্ভিস রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের মাধ্যমে৷’’ একই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের নিয়োগের ক্ষেত্রকে দলবাজি এবং দুর্নীতির আখড়ায় পরিণত করার কাজ আগেই শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ ডেন্টাল শাখায় নিয়োগের ক্ষেত্রেও দেখা গিয়েছে দলবাজি আর দুর্নীতি৷ না হলে, পশ্চিমবঙ্গের বদলে কেন অন্য রাজ্যের ডেন্টাল ডিগ্রিধারীদের নিয়োগ করা হয়েছে এ রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরে?’’

==============================================

আরও খবর:
(০১) ভালো কাজে মমতা-পুরস্কার অমিলে ইস্তফা
(০২) হৃদরোগে আক্রান্তের বোঝা ২৫% কমবে ১০ বছরে!
(০৩) রাজনীতির ফাঁদে ইউনানির সরকারি অধিগ্রহণের স্বপ্ন
(০৪) ছোটদের বিয়ে ছোটরা রুখেই নিঃশব্দ বিপ্লবে যৌনপল্লি
(০৫) মাদার হাউসে যাচ্ছেন সাইকোসিসে আক্রান্ত নিরীহ পার্থ
(০৬) সরকারি অধিগ্রহণের স্বপ্নভঙ্গে ধর্মঘটে চিকিৎসা-শিক্ষা
(০৭) বঙ্গবিভূষণের বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ কলকাতা হাইকোর্টে
(০৮) কেন্দ্রের নয়া স্বাস্থ্যনীতির বিরোধিতায় রাজ্য
(০৯) কেন্দ্রীয় প্রকল্পে প্রসূতি-শিশু-মুমূর্ষুর স্বাস্থ্য সুরক্ষায় রাজ্য
(১০) হাসপাতাল-বন্দি মদনের রোগ খুঁজতে চিঠি কমিশনে
(১১) রোগ নির্ণয়-অস্ত্রোপচারে অসুরক্ষিত রোগী-পরিজনরা
(১২) সোনালি ডানায় ভাষা-সন্ত্রাসের সংস্কৃতি উৎসব
(১৩) স্পেশাল মেনু-তন্তুজে রঙিন হচ্ছেন ‘মনোজগৎ-বাসী’রা
(১৪) ডাক্তারের লাইসেন্স বাতিলে তৃণমূলকে হারাল বামেরা
(১৫) বিনামূল্যে অ্যাসিড-আক্রান্তের চিকিৎসায় সুপ্রিম-পথে রাজ্য
(১৬) বাংলায় নির্মল-হাওয়া দূরীকরণে পত্র-বোমা রাজদরবারে

==============================================

----
--