বাংলায় শিক্ষার মানকে উন্নত করতে সব স্কুলে লাইব্রেরি

কলকাতাঃ  বাংলায় শিক্ষার মানকে আরও উন্নত করতে চায় রাজ্য সরকার। আর সেই কারণে রাজ্যের সমস্ত স্কুলে গ্রন্থাগার গড়ার উদ্যোগ নিল সরকার। প্রাথমিক থেকে উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের সমস্ত সরকারি স্কুলে লাইব্রেরি তৈরি করতে টাকা বরাদ্দ করল রাজ্য সরকার।

এসএসকে ও এমএসকে স্কুলকেও বুক গ্র্যান্ট খাতে টাকা দেওয়া হবে। প্রাথমিক থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যন্ত স্কুলগুলিকে মোট আটটি ভাগে ভাগ করে তিন হাজার থেকে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত দেওয়া হবে বলে বাংলা এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে।

প্রকাশিত খবর মোতাবেক, এই খাতে মোট প্রায় ৪০কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রাম জেলার স্কুলগুলির জন্য প্রায় সাত কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। আগস্ট মাস থেকে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে জেলায় জেলায় অনুষ্ঠিত বইমেলায় স্কুলগুলিকে বরাদ্দ হওয়া টাকায় বই কেনার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

- Advertisement -

রাজ্যে কয়েক হাজার সরকারি স্কুল রয়েছে। যার বেশিরভাগ স্কুলের মধ্যে লাইব্রেরি নেই। কিন্তু শিক্ষার মান উন্নতিতে অবশ্যই লাইব্রেরি থাকাটা বাধ্যতামুলক। তাই সমগ্র শিক্ষা অভিযান প্রকল্পে রাজ্যের প্রতিটি স্কুলকে এবারই প্রথম বুক গ্র্যান্ট বাবদ টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। রাজ্যের সমস্ত স্কুলকে মোট আট ভাগে ভাগ করা হয়েছে।

খুব শীঘ্রই স্কুলগুলিতে টাকা পৌঁছে যাবে বলে সূত্রে জানা গিয়েছে। রাজ্য সরকারের এহেন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন বাংলার শিক্ষাবিদরাও। তাদের মতে, শিক্ষার উপরেই নির্ভর করে সেই রাজ্যের উন্নতি। আর সেই কারনে সমস্ত স্কুলে লাইব্রেরি থাকাটা খুবই প্রয়োজন। আর তাই সরকারের এই সিদ্ধান্ত সত্যিই প্রসংসা করার মতো বলে মত শিক্ষাবিদদের।

Advertisement
----
-----