দিদিমণির রক্তচক্ষু উড়িয়ে ফের বিরোধীদের হুমকি অনুব্রতর

স্টাফ রিপোর্টার, কাটোয়া: দলনেত্রীর ‘লাস্ট ওয়ার্নিং’ এর পরও নিজস্ব মেজাজেই রয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল৷ ফের বিরোধীদের চড়া সুরে হুমকি দিলেন তিনি৷ বললেন, ‘‘হুমকি দিলে ছাড়ব না। আমি কাউকে ভয় করি না। চোখ দেখালে আমি রেয়াত করব না। ভয় দেখাতে এলে অন্য ব্যবস্থা নেব।’’

আরও পড়ুন- অনুব্রতকে ঘিরে স্কুল চত্বরেই লেগে গেল শাসক-বিরোধী ধুন্ধুমার

রবিবার মঙ্গলকোটে দলীয় জনসভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নিজস্ব ঢঙেই বীরভূমের জেলা সভাপতি একথা বলেন৷ সাংবাদিকরা তাঁকে দলনেত্রীর ‘লাস্ট ওয়ার্নিং’ এর কথা জানালে নির্লিপ্তভাবে অনুব্রত জানিয়ে দেন, ‘‘দিদি আমার গার্জেন। ওনার যা বলার তা বলবেন। যা বকার তা বকবেন। আমার যা বলার আমি তাই বলব।’’

- Advertisement -

এদিন সভার শুরুতে অনুব্রত মণ্ডলকে ১৫ ভরি ওজনের রূপোর ঢাক উপহার দিয়ে বরণ করে নেন মঙ্গলকোট ব্লক তৃণমূল নেতৃত্ব। দলের মঙ্গলকোটের পর্যবেক্ষক অনুব্রত ছাড়াও সভায় হাজির ছিলেন রাজ্যের মৎসমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিংহ, শেখ শাহনওয়াজ প্রমুখ৷ জনসভার ভাষণে অবশ্য শব্দ ব্যবহারে সংযতই ছিলেন বীরভূমের জেলা সভাপতি৷

আরও পড়ুন- মমতাকে পাত্তা না দিয়ে ফের বোমা ফাটালেন অনুব্রত

প্রসঙ্গত, গত মাস খানেক ধরে প্রতিটি জনসভায় নিয়ম করে বিরোধীদের হুমকি দিয়ে আসছেন তিনি৷ গত পঞ্চায়েত ভোটে বিরোধীদের ভোট দিতে না দেওয়া থেকে পুলিশের বোমা মারার পরামর্শ দিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি৷ ওই ঘটনা শেষ পর্যন্ত আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছিল৷ অনুব্রতর হুমকির পাল্টা হুমকি শোনা গিয়েছে বিজেপির নেতাদের দিক থেকে৷

এরপরই আসরে নামেন খোদ দলনেত্রী৷ গত ১১ ডিসেম্বর দুর্গাপুরে সরকারি সভার মঞ্চ থেকে প্রকাশ্যেই অনুব্রতকে সর্তক করে দলনেত্রী বলেছিলেন, ‘‘আমি কেষ্টকে লাস্ট ওয়ার্নিং দিচ্ছি৷ ওর মুখ থেকে যেন আর কোনও বাজে কথা না শুনি।” ওয়াকিবহাল মহলের মতে, ফের বিরোধীদের হুমকি দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ঘনিষ্ট কেষ্ট প্রমাণ করলেন – তিনি আছেন নিজস্ব মেজাজেই৷

Advertisement
---